kalerkantho


নারীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাওয়া উচিত : অক্ষয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ২১:৪৯



নারীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাওয়া উচিত : অক্ষয়

প্যাডম্যান ছবিতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়কে তুলে ধরা হয়েছে। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা অক্ষয় কুমার এই ছবিতে নারীদের ঋতুকালীন স্বাস্থ্যের বিষয়টি গল্পের আকারে সামনে এনেছেন। এবার অক্ষয় বললেন, নারীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাওয়া উচিত। কারণ, এটি তাদের মৌলিক চাহিদাগুলির মধ্যে অন্যতম।

প্যাডম্যান ছবির অভিনেতাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, স্যানিটারি ন্যাপকিনে জিএসটি-র পরিমাণ কমানো নিয়ে তিনি সরকারকে আবেদন করতে চান কি না। এই প্রসঙ্গে তিনি সংবাদমাধ্যমকে জবাব দেন, শুধু জিএসটিতে ছাড় কেন, আমার তো মনে হয় নারীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাওয়া উচিত। কারণ, এটি তাদের অন্যতম মৌলিক চাহিদা। তাছাড়া, বিষয়টি ঋতুকালীন স্বাস্থ্যের। স্যানিটারি ন্যাপকিন বিলাসিতা নয়।

তিনি আরও বলেন, এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক। আর আমার বলতে লজ্জা করছে যে, ভারতের প্রায় ৮২ শতাংশ নারী স্যানিটারি প্যাড ব্যবহারের সুবিধা পান না। আর ঋতুচক্রের ওই পাঁচটি দিন তাদের সঙ্গে নানাভাবে দুর্ব্যবহার করা হয়। বিষয়টি সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক।

প্যাডম্যান ছবিটি আসলে অরুণাচলম মুরুগানানথামের আত্মজীবনী। তিনিই প্রথম ভারতে কম খরচে স্যানিটারি প্যাড বানানোর যন্ত্র তৈরি করেন। প্যাডম্যান ছবির বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর, যা নিয়ে প্রকাশ্যে  আলোচনা করতেও দ্বিধা বোধ করেন বেশিরভাগ মানুষ। তাই, ছবিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আগে কোন কোন বিষয়গুলি মাথায় রাখতে হয়েছিল?

এর উত্তরে অক্ষয় বলেন, প্রথমত, বিষয়টিকে স্পর্শকাতর বলবেন না। এটি মানব শরীরের খুব স্বাভাবিক একটি প্রক্রিয়া। এই সংক্রান্ত সব ছুৎমার্গ এবার দূরে সরানোর সময় এসেছে। সময় এসেছে পরিণত মানসিকতার সঙ্গে এটিকে বিচার করার। একজন নারীরও এই নিয়ে কথা বলতে গিয়ে লজ্জা পাওয়ার কোনও কারণ নেই। আর এনিয়ে চুপিচুপি কিছু বলারও প্রয়োজন নেই।

ছবিটি প্রযোজনা করেছেন অক্ষয়ের স্ত্রী টুইঙ্কল খান্না। পরিচালক আর বালকি। এখনও পর্যন্ত ২৬ জানুয়ারি ছবিটি মুক্তি পাবে বলেই মনে করা হচ্ছে।


মন্তব্য