kalerkantho


ঢাকা আর্ন্তজাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সার্কেল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৫:৩৭



ঢাকা আর্ন্তজাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সার্কেল

আবহমান বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অংশ চৈত্রসংক্রান্তি উৎসব। টাংগাইলের ভাদ গ্রামের জনপদের মানুষের সংক্রান্তি উৎসবে চড়ক পূজা, কৃত্য, উপাচারের বিভিন্ন দৃশ্যায়ন টানা ৫ বছর বিভিন্ন সময়ে ক্যামেরাবন্দী করে ‘সার্কেল বা আবর্তন’ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন তরুণ নির্মাতা শান্তনু হালদার। নর ও নারী সত্ত্বার ভাব দর্শন, দেহতত্ত্ব, সর্বপ্রাণবাদ ও কালসম্পর্কিত দর্শন এই চলচ্চিত্রের মূল উপজীব্য। চলচ্ছবি প্রযোজিত প্রামাণ্য চলচ্চিত্রটি ১৬তম ঢাকা আর্ন্তজাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে স্পিরিচুয়াল বিভাগে ১৯ জানুয়ারি রাশিয়ান কালচারাল সেন্টারে প্রদর্শিত হবে। এ প্রসঙ্গে শান্তনু হালদার বলেন,‘দশাগ্রস্ত কৃত্যমূলক পরিবেশনার মাধ্যমে উৎসব সংশ্লিষ্ট মানুষ সকল নিত্যকার জীবন ভুলে অনিত্যের দিকে যাত্রা করে। এই যাত্রার মধ্য দিয়ে নিত্যকার জীবনে বাঁচবার নয়া রশদ খুঁজে পায় ওই উৎসবের মানুষ সকল। প্রবাহমান আগ্রাসি বৈশ্বয়িক সংস্কৃতির বাজারে আমরা যে ভাবে সাঁতার কাঁটছি তার বিপরীতে উল্টো ¯্রােতে সাঁতার কাটায় ‘সার্কেল’ প্রামাণ্য চলচ্চিত্রটি।’
‘সার্কেল বা আবর্তন’ উৎসর্গ করা হয়েছে প্রয়াত অভিনেতা দিলীপ চক্রবর্তীকে, যিনি প্রামাণ্য চলচ্চিত্রে ধারণকৃত জনপদের একজন ছিলেন। ২৮ মিনিট ব্যাপ্তিকালের চলচ্চিত্রটির পান্ডুলিপি নির্মাতা শান্তনু হালদারের। সম্পাদনায় রিপন সাহা, ক্যামেরায় খান আল মামুন ইসলাম ও শান্তনু হালদার,ধারা বর্ণনায় লালটু হোসেন এবং সাব টাইটেল করেছেন শাহমান মৈশান ও জায়েদ সিদ্দিকি।
উল্লেখ্য, শান্তনু হালদারের প্রথম প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘দি ওয়েভ’ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়ে ভূয়সি প্রসংশার পাশাপাশি অসংখ্য পুরস্কারে অর্জন করেছে।

 

 


মন্তব্য