kalerkantho


বিনিয়োগ মুনাফা এক অঙ্কে নামাল দুটি ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ জুন, ২০১৮ ০০:০০



বিনিয়োগ মুনাফা এক অঙ্কে নামাল দুটি ব্যাংক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার স্বার্থে বিনিয়োগে মুনাফার হার সিঙ্গল ডিজিটে বা এক অঙ্কে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড। একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড—এসআইবিএলও। আগামী ১ জুলাই থেকে এই হার কার্যকর হবে। গতকাল মঙ্গলবার পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে ব্যাংক দুটির কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, শরিয়াহভিত্তিক ব্যাংকগুলো ঋণের পরিবর্তে বিনিয়োগের মাধ্যমে  অর্থায়ন করে থাকে। আর সুদের পরিবর্তে মুনাফাভিত্তিক লেনদেন ব্যবস্থায় বিশ্বাস করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ মুনাফা সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার জন্য সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনার আলোকে ইসলামী ব্যাংক প্রথম এই উদ্যোগ গ্রহণ করে। এর মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক দেশে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ উন্নয়ন, নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সহযোগী হিসেবে কাজ করে চলেছে। এ ছাড়া এই উদ্যোগের মাধ্যমে দেশের শিল্প, অবকাঠামো, ব্যবসা-বাণিজ্য ও আমদানি-রপ্তানিসহ সব ক্ষেত্রে উন্নয়নের ধারা আরো বেগবান হবে। দেশের বৃহত্তম ব্যক্তি মালিকানাধীন এই ব্যাংক দেশ ও জাতির সেবায় সর্বদা নিয়োজিত।

দেশের ব্যাংকগুলোর ঋণের সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এ পর্যন্ত ব্যাংক খাতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। গত জুলাইয়ে ব্যাংকগুলোর নগদ জমার বাধ্যবাধকতা (সিআরআর) ১ শতাংশ কমিয়ে ৫.৫ শতাংশ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের নির্দেশে সরকারি আমানতের ৫০ শতাংশ বেসরকারি ব্যাংকগুলোতে রাখার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া ব্যাংকগুলোর ঋণ-আমানত অনুপাত (এডিআর) সমন্বয়ের জন্য আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সম্প্রতি বাজেট প্রস্তাবে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ব্যাংকের করপোরেট কর ২.৫ শতাংশ কমিয়ে আনা হয়েছে। এসব উদ্যোগের পেছনে সরকারের লক্ষ্য ছিল ব্যাংকের তারল্য সংকট কমিয়ে ঋণের সুদহার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনা। এরই ধারাবাহিকতায় ইসলামী ব্যাংক তার বিনিয়োগের মুনাফার হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিল।

অন্যদিকে সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড (এসআইবিএল) কর্তৃপক্ষ আগামী ১ জুলাই থেকে বিনিয়োগ মুনাফার হার সিঙ্গেল ডিজিটে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। এক বিজ্ঞপ্তিতে এসআইবিএল জানায়, কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যমাত্রায় বিনিয়োগ বৃদ্ধি, নতুন উদ্যোক্তা তৈরি, কর্মসংস্থান এবং ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়নে আমদানি-রপ্তানি, বৈদেশিক রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ানোর মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে একটি উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সরকারের অর্থনৈতিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে বরাবরের মতো এই ব্যাংকটি উন্নয়নের সহযোগী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

এফবিসিসিআইয়ের অভিনন্দন : দেশের উন্নয়নের ধারাকে বেগবান করতে বিনিয়োগে ব্যাংক ঋণের সুদের (বিনিয়োগ মুনাফা) হার এক অঙ্কে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ইসলামী ব্যাংককে অভিনন্দন জানিয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন এফবিসিসিআই।

গতকাল মঙ্গলবার সংগঠনের এক অভিনন্দনবার্তায় বলা হয়, দেশের ব্যবসায়ীদের আবেদন এবং প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সাড়া দিয়ে সুদের হার এক অঙ্কে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানায় এফবিসিসিআই। সংগঠনটির আশা, ১ জুলাই ২০১৮ থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে অভিযাত্রার এ মুহূর্তে দেশে বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানের অন্যতম পূর্বশর্ত বিনিয়োগে ঋণের সুদহার হ্রাস করা। তাই ইসলামী ব্যাংকের পাশাপাশি অন্য ব্যাংকও ব্যবসা ও শিল্পবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সুদহার কমিয়ে আনবে।

এফবিসিসিআই মনে করে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড আন্তর্জাতিক মহলে প্রশংসিত হচ্ছে। তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ফলে বাংলাদেশ আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের মর্যাদা লাভ করতে সক্ষম হবে।

চট্টগ্রাম চেম্বারের অভিনন্দন : নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম জানান, আগামী ১ জুলাই ২০১৮ তারিখ থেকে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের বিনিয়োগে মুনাফার হার সিঙ্গেল ডিজিটে বা ১০ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিসিসিআই)। এক বিবৃতিতে সিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার প্রতি সম্মান রেখে দেশের প্রথম ব্যাংক হিসেবে ইসলামী ব্যাংকের এই সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী ও যুগান্তকারী পদক্ষেপ।

ইসলামী ব্যাংকের এই ইতিবাচক পদক্ষেপের জন্য মাহবুবুল আলম সারা দেশের ব্যবসায়ী সমাজের পক্ষ থেকে ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, তিনি আশা করেন অন্য ব্যাংকগুলো দ্রুত বিনিয়োগে মুনাফার হার সিঙ্গেল ডিজিটে নির্ধারণ করবে।

 



মন্তব্য