kalerkantho

horror-club-banner

হরর ক্লাব : বিয়েবাড়ির সেই ছবিতেই দেখা গেল ভূত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মার্চ, ২০১৭ ১৪:০৩



হরর ক্লাব : বিয়েবাড়ির সেই ছবিতেই দেখা গেল ভূত

বিশ্বের নানা দেশে বিভিন্ন সময় অনেকের ক্যামেরায় উঠে এসেছে ভূতের প্রমাণ, যার কোনো ব্যাখ্যা নেই। এসব ছবির সত্যাসত্য নিয়ে বিতর্ক থাকলেও বহু মানুষেরই শিরদাঁড়া দিয়ে শীতল স্রোত বয়ে যায় এ ছবি দেখে।

এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন এক প্রমাণ। ধারাবাহিকভাবে এ ধরনের বেশ কয়েকটি ছবি প্রকাশিত হচ্ছে কালের কণ্ঠে। আজ পাচ্ছেন তার ১৯ তম পর্ব।

বিয়েবাড়ির সেই ছবিতেই দেখা গেল ভূত
ইংল্যান্ডের হেটফোর্ডশায়ারের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবি তুলতে গিয়েছিলেন নীল স্যান্ডব্যাচ। তিনি মূল বিয়ে হয়ে যাওয়ার পর আশপাশের কয়েকটি ছবি তুলছিলেন। এ সময়েই একটি ছবিতে উঠে আসে অদ্ভুত এক দৃশ্য, যা দেখে তিনি অবাক হয়ে যান।
বেশ কয়েক বছর আগে ফিল্ম ক্যামেরাতেই ছবি তুলছিলেন নীল। এ সময় সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ায় কিছুটা অন্ধকার হয়ে গিয়েছিল। তবে তার তোলা শেষ ছবিটা প্রিন্ট করার পর এ অদ্ভুত বিষয়টি দেখে শিউরে ওঠেন।


বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবিগুলোতে কোনো সমস্যা ছিল না। তবে তিনি যখন আশপাশের প্রকৃতির ছবিগুলো তুলেন তখনই কিছুটা অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করেছিলেন। তাই অপেক্ষায় ছিলেন ছবিগুলো প্রিন্ট হওয়ার। এরপর ছবিটি হাতে পেয়েই তিনি নিশ্চিত হন। অস্বাভাবিক এ দৃশ্য দেখে তার শিরদাঁড়া দিয়ে যেন শীতল স্রোত বয়ে যায়।
কী ছিল সেই শেষ ছবিটিতে? ছবিতে দেখা যায়, একটি অস্বাভাবিকভাবে বাতাসে ভাসমান উজ্জ্বল সাদা দেহ। সম্ভবত একটি শিশুর দেহ সেটি। আর সেই শিশুটি ছিল তার থেকে কিছুটা দূরে ডান পাশে।
পরবর্তীতে তিনি সে স্থানের লোকজনের সঙ্গে আবার যোগাযোগ করেন। এ ধরনের কোনো অস্বাভাবিক বিষয় তাদের কারো চোখে পড়েছে কি না এটি জানতে। তবে তাকে নিরাশ হতে হয়। কারণ এটি কোনো ডেকোরেশন ছিল না। আবার কোনো মানুষও নয়। তাহলে কী ছিল সেই অদ্ভুত ভাসমান দেহটি? এ বিষয়ে কোনো কূলকিনারা হয়নি আজও।


মন্তব্য