kalerkantho


সনি এক্সপেরিয়া এক্সএ১ আল্ট্রা : বড় সাইজের কার্ভড স্ক্রিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৩:৩৮



সনি এক্সপেরিয়া এক্সএ১ আল্ট্রা : বড় সাইজের কার্ভড স্ক্রিন

জাপানের টেক জায়ান্ট সনি বেশ সময় ধরে তাদের স্মার্টফোন অংশটি নিয়ে পেরেশানিতে রযেছে। এরা শেষ অবধি 'প্রিমিয়াম' মানের ফোনের দিকে মনোযোগ কম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কেবলমাত্র ফ্ল্যাগশিপ নিয়েই ব্যস্ত হওয়ার চিন্তা করছে। এ বছরই দুটো ফ্ল্যাগশিপ সিরিজের দুটো মডেল এনেছে তারা। একটি এক্সপেরিয়া এক্সজেডএস এবং এক্সপেরিয়া এক্সজেড প্রিমিয়াম। এর সঙ্গে আরেকটি ফোন এনেছে তারা। ওটা এক্সপেরিয়া এক্সএ১ আল্ট্রা। সবাই বলছেন, মধ্যম মানের স্পেসিফিকেশন বলে মনে হতে পারে। সে তুলনায় দামটা বেশি মনে হলেও জিনিস কিন্তু দারুণ।  

এক্সপেরিয়া সিরিজের অন্য ফোনগুলো যেমন দেখতে, এর চেহারা একনজরে তেমনই মনে হবে। সামান্য পরিবর্তগুলো বুঝতে খুঁটিয়ে দেখতে হয়।

এটা এক্সডেজ সিরিজের মতো অনেকটা চারকোণা বাক্সের চেহারা পেয়েছে। সনি এটাকে বলছে লুক সারফেস ডিজাইন। ওপর থেকে তাকালে বিষয়টি চোখে পড়বে। পর্দার ডান-বামে কোনো ফ্রেমই চোখে পড়বে না। পুরোটাই স্ক্রিন। শুধু তাই নয়, ওই দুই পাশে কার্ভড করা হয়েছে স্ক্রিন। ওপর-নিচ অবশ্য সামান্য বেজেল আছে।

পর্দাটা বেশ বড়, একেবারে ৬ ইঞ্চি। এটাকে সনির সবচেয়ে বড় স্ক্রিনের ফোনের শুরু বলা যেতে পারে। এই বিশাল স্ক্রিনেও অবশ্য রেজ্যুলেশন প্রতি ইঞ্চিতে ৩৬৭ পিক্সেল মিলবে। কোণ থেকেও সুন্দর দেখা যায়। এতে ব্যবহার করা হয়েছে মডিয়াটেক হেলিও পি২০ চিপ। এটা অক্টা-কোর প্রসেসর। অভ্যন্তরে ৬৪ জিবি স্টোরেজ আর ৪ জিবি র‍্যাম রয়েছে।  

সনি এক্সএ১ আল্ট্রায় আছে অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নুগেট। যোগ হয়েছে এক্সপেরিয়ার কাস্টম ইউআই। র‍্যাম চমৎকার কাজ করে। সারাদিন ব্যবহার করলেও প্রায় ২ জিবি র‍্যাম একদম ফ্রি থাকে। পেছনে রয়েছে ২৩ মেগাপিক্সেলের অটোফোকাস ক্যামেরা। আছে একটি এলইডি ফ্ল্যাশ। আর সামনে মিলবে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। অন্যান্য এক্সপেরিয়া সিরিজের প্রিমিয়াম মডেলগুলোর ক্যামেরার মতোই অটো মোড মিলবে এতে।  

ফুল এইচডি ভিডিও ধারণে সক্ষম দুটো ক্যামেরাই। পেছনের ক্যামেরায় পাবেন এইচপিআর মোড। বর্তমানে বাজারে একই দামের মধ্যে যে মোবাইলগুলো রয়েছে, কোনোটাই ৪কে ভিডিও ধারণে সক্ষম নয়।  

আসলে যারা ফ্যাবলেট কিনতে চান তাদের জন্য এই ফোনটি মন্দ নয়। এর ২৭০০এমএএইচ ব্যাটারি বেশ ভালো ব্যাকআপ দেয়। বাংলাদেশের বাজারে দামের হেরফের হলেও ৩৫ হাজার টাকার আশপাশেই দাম থাকবে।
সূত্র : গেজেট স্নো 


মন্তব্য