kalerkantho


স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ২৫% প্রতিদিন এতে ৭ ঘণ্টা ব্যয় করেন!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৭ ১৬:২৩



স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ২৫% প্রতিদিন এতে ৭ ঘণ্টা ব্যয় করেন!

কাউন্টার পয়েন্ট নামের একটি জরিপ সংস্থা স্মার্টফোনের ব্যবহার এবং মোবাইল প্রযুক্তির প্রতি লোকের দৃষ্টিভঙ্গিসংক্রান্ত কৌতূহলোদ্দীপক কিছু সংখ্যা প্রকাশ করেছে। সংস্থাটির গবেষকদের মতে, স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের অর্ধেকই প্রতিদিন ফোনে ৫ ঘণ্টারও বেশি সময় ব্যয় করেন।

আর ২৬% দিনের ৭ ঘণ্টারও বেশি সময় ব্যয় করেন তাদের ফোনে। অন্যদিকে, বিশ্বব্যাপী স্মার্টফোন হার্ডওয়্যারের পেছনে মানুষের ব্যয় ৩৭০ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে।

কাউন্টার পয়েন্টের বিশ্লেষকদের মতে, উন্নত দেশের তুলনায় উন্নয়নশীল দেশের স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাই মোবাইল স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থাকেন বেশি সময় ধরে।

যেমন, মালয়েশিয়ার স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ৫৫% প্রতিদিন ৫ ঘণ্টা ব্যয় করেন তাদের ফোনেরে স্ক্রিনের দিকে তাকিয়ে থেকে। অন্যদিকে, জাপানের মাত্র ৪৩% স্মার্টফোন ব্যবহারকারী প্রতিদিন ফোনের স্ক্রিনে ৩ ঘণ্টা সময় ব্যয় করেন।

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ৬৪% জানিয়েছেন ফোনে তাদের সবচেয়ে প্রিয় কাজ ইন্টারনেট ব্রাউজ করা। ৬২% জানিয়েছেন তাদের পছন্দ গেমিং। ৫৫% বলেছেন তাদের প্রিয় কাজ ভয়েস কল করা আর ৫৪% জানিয়েছেন ম্যাসেজিং করা তাদের প্রিয় কাজ, হতে পারে তা এসএমএস, আইম্যাসেজ, ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার।

বিশ্বব্যাপী একজন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী গড়ে ২১ মাস পরপর ফোন বদলান।

আর মেক্সিকোতে গড়ে প্রতি ১৮ মাসে নতুন ফোন কেনেন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা।  আর জাপানিরা প্রতি ২ বছর পরপর নতুন স্মার্টফোন কেনেন।

উন্নত দেশের ভোক্তারাই স্মার্টফোনের পেছনে বেশি টাকা ব্যয় করতে আগ্রহী। সৌদি আরব, অস্ট্রেলিয়া এবং জার্মানির ভোক্তারা একটি ফোনের পেছনে সর্বোচ্চ ৪০০ মার্কিন ডলার বা প্রায় ৩৩ হাজার টাকা ব্যয় করতে রাজি আছেন। এমনকি তাদের এক তৃতীয়াংশ ৫০০ ডলার পর্যন্তও ব্যয় করতে রাজি আছেন।

কিন্তু ভারতের মতো দেশের ভোক্তাদের মাত্র ৫% এত টাকা ব্যয় করতে চাইবেন।

ডিজিটাল পেমেন্ট এবং ওয়ালেট অ্যাপস সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় পূর্ব এশিয়ায়। মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডের ৪৫% স্মার্টফোন ব্যবহারকারী এ ধরনের অন্তত একটি সার্ভিস ব্যবহার করেন।

সূত্র : জিএসএম অ্যারেনা


মন্তব্য