kalerkantho


জোকস : হিরনের না হয় মতিভ্রম হইছে কিন্তু রিঙ্কির মতো সুন্দরী...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ আগস্ট, ২০১৭ ১৪:৩৫



জোকস : হিরনের না হয় মতিভ্রম হইছে কিন্তু রিঙ্কির মতো সুন্দরী...

                                                (১)

শত কোটি টাকার মালিক ৬৫ বছরের হিরন সাহেব। বিপত্নীক এই লোকটি হঠাৎ করেই দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তরুণী মডেল রিংকিকে বিয়ে করে ফেললেন। এরপর দিলেন বিশাল পার্টি।

'বন্ধুরা' অবাক। হিরনের না হয় মতিভ্রম হইছে কিন্তু রিংকির মতো বিদূষী শ্রেষ্ঠ সুন্দরী, যার বয়স মাত্র ২৩, হে কেমনে ধরা খাইল বুইড়্যার ফাঁদে?

শেষমেশ 'বন্ধুরা' হিরনকেই ধরে বসল। হিরন সব শুনে চোখ বন্ধ করে বললেন : আমি আমার বয়স নিয়ে মিথ্যা বলেছি তাকে।

প্রথম বন্ধু : মানে! তুই শালার বয়সতো একটা অন্ধ লোকও বুঝব যে ৬০ বছরের একদিনও কম না!

হিরন : তোর কথা ঠিক, দোস্ত!

দ্বিতীয় বন্ধু : তাইলে? তুই বয়স কম দেখাইলি কেমন করে?

হিরন : তোরা ভুল বুঝছিস। আমি বয়স কমিয়ে নয়, বাড়িয়ে বলেছি। ভুয়া সার্টিফিকেটে দেখিয়েছি আমার বয়স ৮৭ বছর… আর ক'দিন বাদেই তো….  

                                                (২)
স্ত্রী : বাবা ফোন দিয়েছিলেন। তোমার শালার জন্য কনে পছন্দ করতে যাবেন, তোমাকেও সঙ্গে যেতে হবে।

স্বামী : উনাকে বলো নিজের বিবেচনা খাটাতে।

আমার ব্যাপারে আমি নিজেই কেমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি তা তো জানোই!

                                                 (৩) 


বিয়ে এমন এক আঘাত যেখানে আহত হবার আগেই চোট সারাতে শরীরে হলুদ মাখিয়ে দেয় স্বজনরা!

                                                 (৪) 
বিয়ের আসরে কনে বসে আছে। লাজনম্র আনত দৃষ্টিতে, মস্তক অনেকটাই অবনত তার কোলের দিকে। চারদিকে বিয়ে বাড়ির অনেক হইচই শব্দ হচ্ছে, অতি উৎসাহী অনেকেই নতুন বউকে ডাকও পাড়ছে। বউ মাথা নিচু করেই আছে।  

এ সময় একজন মুরুব্বি নারী পাশে বসা নিজের তরুণী পুত্রবধূকে বললেন, বুঝেছ মা, এটাই হচ্ছে আমাদের ঐতিহ্য, তাহজিব! মেয়েটা কত শালীন, কত ভদ্র, একদম পাথরের মূর্তির মতো লাজুক লতা হয়ে মাথা ঝুঁকিয়ে বসে আছে, লজ্জায় মরি মরি ভাব! আহ! দেখতেও চোখ জুড়িয়ে যায়। নিশ্চয়ই বাবা-মা সঠিক আদব-কায়দা শিখিয়েছে তাকে! তোমাদেরও উচিত এমন হওয়া! যা দিনকাল পড়েছে…

এমন সময় পাশ থেকে এক ইঁচড়ে পাকা ছেলে বলে উঠল- খালাম্মা, নয়া বউতো ফেসবুকের অনলাইন লাইভে আছে এখন। আমিও আছি তার কন্ট্যাক্টে। কোলে তার বাবার ট্যাব রয়েছে… লাইভে বয়ফ্রেন্ডরা সব চোখের পানি...

                                               (৫) 
বাচ্চা ছেলে জিজ্ঞেস করল : বাবা, বিয়ে জিনিসটি আসলে কী?

বাবা : আমার সামনে থেকে এই মুহূর্তে দূর হ!

বাবার ধমক খেয়ে ছেলে দূরে সরে গেল। এবার বাবা ফের বললেন : তুমি আমার সামনে আসছ না কেন?

বাচ্চা ছেলে বাবার এমন আচরণে কিছু বুঝতে না পেরে কেঁদে ফেলল : বাবা আমি কী দোষ করলাম? তুমিই তো…

বাবা : ঠিক! বিবাহিত জীবন বিষয়টা হচ্ছে ঠিক এমনি। তুই বড় হলে বুঝবি বাবা… এখন খেলায় মন দে! 


মন্তব্য