kalerkantho


ম্যানহোলে আইনজীবীসহ ৪ জোক্‌স

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৭:৫১



ম্যানহোলে আইনজীবীসহ ৪ জোক্‌স

প্রতীকি চিত্র

                                                 (১)
গুরুতর অসুস্থ স্ত্রীকে নিয়ে দুর্গম গ্রাম অঞ্চল থেকে শহরে এসেছেন এক কৃষক। বড় ডাক্তারের চেম্বারে নিয়ে গেলেন স্ত্রীকে।

কৃষক বৌ একের পর এক রোগের বয়ান দিয়ে যাচ্ছেন। এসময় ডাক্তার রোগীর জ্বর মাপার জন্য থার্মোমিটার দিয়ে মুখ বন্ধ রাখতে বললেন।

ওদিকে, স্ত্রীকে এতটা সময় মুখ বন্ধ রাখতে দেখে উৎফুল্ল হয়ে চেঁচিয়ে উঠলেন সহজ সরল কৃষক। ডাক্তারকে বললেন, স্যার, কাঁচের ওই কাঠিটার দাম কতো আগে কন!

(২)
ডাক্তারের চেম্বারে গেছেন এক নারী।  

নারী: ডাক্তার সাহেব, রোগ আমার না, আমার স্বামীর।  

ডাক্তার: তাই নাকি! বলেন তো দেখি কী সমস্যা?

নারী: মানে বেচারা বিষয়টা জানলে লজ্জা পাবে তাই তার অগোচরে চিকিৎসাটা সারতে চাই।

ডাক্তার: সমস্যাটা বলুন, প্লিজ।

নারী: ও ঘুমের মধ্যে কথা বলতে থাকে। প্রতিদিন হচ্ছে এই সমস্যা।

এর সমাধান কী বলুন, প্লিজ...

ডাক্তার: তিনি যখন জেগে থাকেন তখন তাকে কথা বলার সুযোগ করে দিন!

                                                (৩)
আদালতপাড়ার পাশের রাস্তায় ঢাকনা খোলা ম্যানহোলে পড়ে গেছেন এক ব্যক্তি। ময়লা আর্বজনায় হাবুডুবু খেতে খেতে তিনি একপর্যায়ে ভেসে উঠলেন। দুই হাত দিয়ে ম্যানহোলের পাড় ধরে রইলেন। আশপাশের লোকজন দৌড়ে এসেছে তার সাহায্যে। সবাই হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তার দিকে আর বলছে, আপনার হাতটা দিন।

কিন্তু লোকটি ওপরে ওঠার জন্য কারও হাতই ধরছেন না। অনেকটা জেদি বালকের মতো থমথমে মুখ করে ঝুলে রইলেন দুর্গন্ধ ভরা গর্তে। ওদিকে, লোকজন বিরক্ত হয়ে বলছে: আশ্চর্য! আপনি হাতটা দিচ্ছেন না কেন!?

তবু তিনি ঝুলে রইলেন, কারও হাত ধরলেন না। এসময় ভীড় ঠেলে এগিয়ে এলো স্থানীয় চা দোকানদার এবং সামনে গিয়ে তিনিও হাত বাড়িয়ে দিলেন, তবে মুখে বললেন: স্যার, আমার হাতটা নিন!

অমনি লোকটি খপ করে চাওয়ালার হাত চেপে ধরে এক লাফে উঠে এলেন ম্যানহোলের ঘিনঘিনে গর্ত থেকে।  

সবার আক্কেল গুড়ুম! আচ্ছা আদমি তো? এতক্ষণ কারও হাত ধরলো না, আর কি না ওই চাওয়ালা বলতেই তার হাত ধরে উঠে এলো! 

একজন ক্ষোভের সঙ্গে বললো: ভাই, এতক্ষণ আমরা বললাম ‘হাতটা দিন, হাতটা দিন’- আপনি শুনলেন না। কিন্তু ওই লোকটা বলতেই...

জবাব দিলেন চাওয়ালা: ভাইসব, আমি ইনাকে চিনি। ইনি একজন আইনজীবী। তাই কাউকে কিছু দিতে অভ্যস্ত নন। এজন্য আপনারা সবাই তার হাতটি যখন চেয়েছেন, তখন তিনি তা দেননি। আমি বলেছি, ‘স্যার, আমার হাতটা নিন’- তাই ধরেছেন তিনি...

                                                (৪)     
   
যৌতুকলোভী স্বামীকে কিছুতেই মানুষ করতে পারছে না স্ত্রী। এর মধ্যে স্ত্রী একটি স্বপ্ন দেখে খুব খুশি। সকালে স্বামীকে বললেন: রাতে স্বপ্নে দেখলাম, তুমি আমার জন্য হীরের হার নিয়ে এসেছে! কী যে আনন্দ লেগেছে...

স্বামী: এখনই ঘুমিয়ে গিয়ে সেই স্বপ্ন আবার দেখার চেষ্টা করো। এবার হারসহ ঘুম থেকে উঠবে, নইলে বাপের বাড়ি থেকে হার নিয়ে আসতে হবে...


মন্তব্য