kalerkantho


জোক্‌স: আপনার কুকুরটারে কিছু কইরেন না...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৭ ২০:৫৭



জোক্‌স: আপনার কুকুরটারে কিছু কইরেন না...

                                                (১)

স্ত্রী: বলতো আমাকে কেমন দেখাচ্ছে?

স্বামী: অনেক সুন্দর লাগছে!

স্ত্রী: এভাবে না, ঠিক কতটুকু সুন্দর লাগছে বল...

স্বামী: বিউটিফুল, একদম যেন পরী! এত বেশি ভালো দেখাচ্ছে যে মন চাইতেছে আরেকটা নিয়া আসি!

                                               (২)
স্বামী: আজ ছুটির দিন আমার। পুরাটা দিন হাসিখুশি কাটাতে চাই।

এই নাও, চিড়িয়াখানার টিকিট এনেছি তিনটা!

স্ত্রী: তিনটা কেন?

স্বামী: একটা তোমার জন্য আর বাকী দুইটা তোমার বাবা-মার জন্য!

                                               (৩)
স্ত্রী: এই ড্রাইভারকে আজকেই বিদায় করতে হবে!

স্বামী: কেন কেন?

স্ত্রী: আজ তো শেষ করেই ফেলেছিল আমাকে। ট্রাকের চাকার নিচে যেতে যেতে বেঁচে গেছি, জানু! 

স্বামী: ওকে আরেকটা সুযোগ দাও, প্লিজ... 

                                               (৪)
মন্টুর বাপ স্বপ্নে দেখলো শহরের এক প্রভাবশালী লোকের স্ত্রী মারা গেছে। জানা গেল, স্বামীর পোষা কুকুরের কামড়েই তার অকাল মৃত্যু হয়েছে। কৌতুহলী হয়ে উঠলো মন্টুর বাপ। এতদিনে সুযোগ পাওয়া গেছে! বাড়ির সামনে বিশাল লম্বা লাইনের ভীড় ঠেলে শোকসন্তপ্ত স্বামীটির সামনে গিয়ে দাঁড়ালো মন্টুর বাপ। লোকটি তার দিকে মুখ তুলে চাইতেই মন্টুর বাপ শুরু করল: ভাই, মানুষ মরণশীল। শোক করে আর কী করবেন! তবে আপনার কুকুরটারে কিছু কইরেন না। ওরে আমার জিম্মায় দিয়া দেন, প্লিজ...

লোকটি মুখে কোনো কথা না বলে তাকে বাড়ির সামনের মাইলখানেক লম্বা লাইনটা দেখিয়ে দিল।  

মন্টুর বাপ: মানে?

ওই লাইনের পেছনে গিয়ে দাঁড়ান।

পাশে থেকে একজন বললো।

কেন? লাইনে দাঁড়াতে হবে কেন?

কুকুরটা যারা পেতে চাইছে তারা সবাই ওইখানে লাইনে দাঁড়িয়েছে!

                                                 (৫)
আদালত চলছে। প্রেমের বিয়ের ডিভোর্সের মামলা!

স্ত্রীর পক্ষের আইনজীবী: প্রেমের সময়ে ছেলেরা যতটা আন্তরিক থাকে, বিয়ের পরে যদি তার অর্ধেকও থাকতো তবে কিন্তু এত ডিভোর্সের ঘটনা ঘটতো না, স্যার।

জবাবে স্বামীর পক্ষের আইনজীবী: বিয়ের পরে মেয়েরা যে আচরণ করে বিয়ের আগে যদি তার এক চতুর্থাংশও করতো, তাহলে কিন্তু স্যার, প্রেমের সূত্রে কোনো বিয়েই আর হতো না।  


 


মন্তব্য