kalerkantho


জোকস : আর এটাকে বলে ম্যাচ বাক্স!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৫:৫৭



জোকস : আর এটাকে বলে ম্যাচ বাক্স!

                                                 (১)

পল্টু : বাবা, সুসংবাদ আছে।

বাবা : কথা বলে সময় নষ্ট করছিস কেন? তাড়াতাড়ি বল, কী সুসংবাদ!

পল্টু : তুমি বলেছিলা না পাস করলে মোটরসাইকেল কিনে দেবে?

বাবা : হ্যাঁ বলেছিলাম তো...

পল্টু : তোমার টাকা পুরোটাই বেঁচে গেছে! অভিনন্দন, বাবা...

                                                (২)

সুরাসক্ত বাবা বলছে সদ্য কৈশোরাত্তীর্ণ ছেলেকে : বাপ আমার, মদ্যপান খুব খারাপ, কখনো ছুঁবি না এই জিনিস...

বাপের অমন কথায় বিস্ময়ে থ বনে যাওয়া ছেলে : বলছ কী বাবা? তোমার মুখে এই কথা? 

বাবা : সংসারের হালত ভালো না রে, বাবা।

একসঙ্গে দুজনই যদি খাওয়া শুরু করি তাইলে বাড়ি-ঘর নিলামে উঠতে সময় লাগবে না... তাই বলছিলাম আর কি...

                                                (৩)
বক্তা ও শ্রোতার বিবর্তন...
প্রথম দিকে রুপা আমার গার্লফ্রেন্ড ছিল। তখন আমি বলতাম আর ও বিভোর হয়ে শুনত। এরপর আমাদের এনগেজমেন্ট হলো। তখন থেকে তার বলা শুরু আর আমি হয়ে যাই দর্শক। এখন সে আমার স্ত্রী। এখন আমাদের দুজনের মুখই খোলা, শোনে পুরো মহল্লাবাসী- মন্টুর বাপের ডায়েরি থেকে

                                                (৪)
জনৈক সেলসম্যানের দৃষ্টিতে জামা-কাপড় কিনতে যাওয়া নারীদের সবচেয়ে বেশি আউড়ানো দুটি বাক্য-

১. একই রংয়ের অন্য ডিজাইন দেখান...

২. একই ডিজাইনে অন্য রংয়ের দেখান...

                                                (৫)
চেইন স্মোকার হিসেবে রুস্তমকে সবাই চেনে। একদিন ব্যাংক ক্যাশিয়ারের চাকরি হয়ে গেল তার।  

জয়েনিং ডে-তে ব্যাংক ম্যানেজার নবাগত ক্যাশিয়ারকে পেশাগত নানান টিপস দিতে গিয়ে প্রশ্ন করলেন : বান্ডিল আর প্যাকেটের পার্থক্য বোঝেন তো?

রুস্তম : জ্বী স্যার! প্যাকেট হয় সিগারেটের আর বান্ডিল হয় বিড়ির!

জবাব শুনে কিংকর্তব্যবিমূঢ় ম্যানেজার পকেট থেকে দিয়াশলাইয়ের বাক্স বের করে বললেন- আর এটাকে বলে ম্যাচ বাক্স! ঠিক?

রুস্তম : স্যার! আমি আসলে বুঝতে পারছি না আপনি কী বোঝাতে চাইছেন! আপনি কি আমাকে সিগারেট খাওয়ার অফার দিচ্ছেন...

এবার ম্যানেজার জ্ঞান হারালেন।


মন্তব্য