kalerkantho


জোক্স: তোমার কাছে ৪০০ টাকা হবে?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ অক্টোবর, ২০১৭ ১৬:২০



জোক্স: তোমার কাছে ৪০০ টাকা হবে?

                                                (১)
বস: নারী যদি শক্তির প্রতীক হয় তবে পুরুষ কীসের প্রতীক?
মন্টুর বাপ: সহ্যশক্তি, স্যার!

                                                (২)
অনলাইন চ্যাটিং অভিসারে গদগদ প্রেমিক: তো তোমার বাবার সঙ্গে দেখাটা কখন করলে ভাল হয়?
প্রেমিকা: যখন বাবা খালি পায়ে থাকেন মানে পায়ে জুতো থাকে না।

                                                (৩)
ডাক্তারের সঙ্গে ফোনে কথা বলছেন মন্টুর মা: ডাক্তার সাব, শরীরের কোনোখানে ছুলেই ব্যথা করছে!

ডাক্তার: তার মানে আপনি মারাত্মক অ্যাকসিডেন্ট করেছেন? রাস্তা পার হওয়ার সময়...

মন্টুর মা: না ডাক্তার সাব!

ডাক্তার: তবে কি আপনি অসুস্থ মানে জ্বর হয়েছে? ডেঙ্গু!

মন্টুর মা: দরজায় চাপা খেয়ে ডান হাতের একটা আঙুল ভেঙে গেছে।

সেই আঙুল যেখানেই ছোঁয়াই ব্যথায় পাগল হওয়ার দশা হয়...

ডাক্তার: আমার এখন মাথা ব্যথা করছে... এই কে আছিস! আমাদের ওষুধের বাক্সটা নিয়া আয় জলদি।

                                                (৪)
এক চতুর ভিখারি রাস্তার মোড়ে অচেনা এক পুলিশ অফিসারকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখলো। ভাবলো বোকাসোকা নয়া অফিসার আসছে এলাকায়, যাই একটু ‘মামু’ বানায়া আসি!

ভিক্ষুক: স্যার, দশটা ট্যাকা দেন...

পুলিশ: কেন?

ভিক্ষুক: স্যার, একটা রুটি কিন্যা খামু! কিচ্ছু খাই নাই সেই সকাল থাইক্যা। এখন তো বিকাল হয়া গেল... স্যার, একটু দয়া করেন!

কপালে কষ্টের ভাঁজ ফেলে পুলিশ বললো: আহহা! তুমি সকাল থেকে না খেয়ে আছো! খুবই আফসোস হচ্ছে... এই বলে অফিসার পকেট থেকে একটা ৫০০টাকার নোট বের করে বললো: তোমার কাছে ৪০০ টাকা হবে?

ভিক্ষুক: স্যার হইবো মনে হয়! খুচরা-খাচরা মিলায়া-টিলায়া দিতে পারমু... ভিক্ষুক খুব দ্রুতই চারশ টাকা বের করে পুলিশের হাতে দিল।

এবার পুলিশ তার ৫০০টাকার নোটটি পকেটে রেখে ভিখারির ৪০০টাকা থেকে তাকে ২০০টাকা ফেরত দিয়ে বললো: যাও, ১০০ টাকায় এখনি কিছু কিনে খাও আর ১০০টাকা নিজের কাছে রেখে দাও। বাকি ২০০টাকা জরিমানা রাখলাম- পকেটে টাকা থাকতেও দুই বেলা না খেয়ে থাকার জন্য।

ভিখারি: হায় হায়! কী ভাবলাম আর কী হইলো! আইজকা কার মুখ দেখছিলাম ঘুম ভাইঙ্গা! নিশ্চয়ই গেদির মার। আইজকা তোর ঠ্যাং ভাঙমু বেটির ঘরের বেটি, আমি ঘরে ফিরা লই...

পুলিশ অফিসার ফিরে এসে ভিখারির কাছ থেকে আরও একশ টাকা নিয়ে বললো: এটা গেদির মার ঠ্যাং ভাঙতে চাওয়ার জরিমানা...উনার ঠ্যাং ভাঙলে তোমার ঘাড় ভেঙে দেব আমি!

ভিখারি এবার চিৎকার দিয়ে উঠলো: এইটা কিমুন পুলিশরে বাবা! খারাপ না ভাল- কিছুই বুঝলাম না!   


মন্তব্য