kalerkantho


জোকস: প্রত্যেক নারীর কমন একটি সমস্যা...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৮:২৪



জোকস: প্রত্যেক নারীর কমন একটি সমস্যা...

(১)
সাজগোজ করতে গিয়ে ওয়ারড্রোব খুলে প্রত্যেক নারীর কমন একটি সমস্যা হয়। তা হচ্ছে-

পরার মতো ভালো কিছু নেই। তবে ভেতরে কাপড় রাখার আর জায়গাও নেই- তাও সত্য।

                                                (২)
খুব সুন্দরী এক মেয়ে দাঁড়িয়ে আছে শপিং মলের এক কোণে। উঠতি রংবাজ এক যুবকের খুব মনে ধরেছে তাকে। রূপের আকর্ষণে থাকতে না পেরে সাহস করে এক পা দু পা করে সামনে গিয়ে দাঁড়ালো। এরপর কোনো ভূমিকা ছাড়া একদমে প্রশ্ন ছুঁড়লো-

রংবাজ: বিয়ে হয়ে গেছে আপনার, আপা?

সুন্দরী: জ্বী। কোনো সমস্যা?

আরো পড়ুন  জোকস : হিটলারের ভালোবাসা!

রংবাজ: না মানে, ছেলে কী করে?

সুন্দরী মাস্তানের গালে মগজ-হিলানো এক চড় কষে দিয়ে বললো: আফসোস! সে এখন শুধু ‘আফসোস’ করে।

                                               (৩)

কোন এক জ্ঞানী বলেছিলেন- একই শত্রুর বিরুদ্ধে বারবার যুদ্ধ করা অনুচিত। এর ফলে আপনি না চাইলেও নিজের সমস্ত রণকৌশল তাকে শিখিয়ে ফেলবেন। জ্ঞানীর এই কথা স্বামী-স্ত্রীর ক্ষেত্রেও খাটে। তারা সারাটা জীবন একজন আরেকজনের সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদে এতটাই পোক্ত হয়ে যায় যে দুজনের কেউ-ই হার স্বীকার করে না। কারণ, দুজনেই দুজনের কৌশল মুখস্ত করে ফেলেন। ফলটা হচ্ছে, আমরণ লড়াই চলে কিন্তু ফলাফল হয় না- মন্টুর বাপের ডায়েরি থেকে

                                                (৪)

বস: বল দেখি মাতাল আর সাপের মধ্যে মিল কোথায়?

মন্টুর বাপ: স্যার, দিনভর দুইজনে যতই এঁকেবেঁকে চলুক না কেন- ঘরে ফেরার বেলায় নিজের বাড়ি ঠিকই চিনে নেয়।

                                                (৫)
বউয়ের অনেক পীড়াপীড়িতে শেষতক আইফোন-টেন কিনে দিতে বাধ্য হলো মন্টুর বাপ। বউ খুশ হয়ে সারারাত ফোন নিয়ে ব্যস্ত, মন্টুর বাপের নাক টেনে ঘুমানোর সুযোগ এলো বহুদিন পর। 

কিন্তু সকালে ঘুম ভেঙে তাজ্জব মন্টুর বাপ! দেখলেন, মন্টুর মা খুব মনোযোগে মেকআপ নিচ্ছে।

মন্টুর বাপ: এত সকাল সকাল চুনকাম করতেছো কেন?

মন্টুর মা: বাধ্য হয়েই করতে হচ্ছে...

মন্টুর বাপ: মানে? কোনো কাজে কে তোমারে বাধ্য করতে পারে? এতবড় সাহস কার?

মন্টুর মা: কাল রাতে পাসওয়ার্ড হিসেবে ফেস রিকগনিশন দিয়ে লক করেছিলাম। এখন তো ফোন খুলছে না।

মন্টুর বাপ: কেন?

আরো পড়ুন  জোকস: একজন উকিলকে এই প্রথম পেলাম এখানে...

মন্টুর মা: ফোন আমাকে চিনতেছে না... আমারে চিনতে অস্বীকার করতেছে...

মন্টুর বাপ: মানে যখন ফোন তোমার চেহারা স্ক্যান করছিল তখন তোমার মুখে মেকাপ ছিল। আর এখন মেকআপ নাই বইলা চিনতেছে না!

মন্টুর মা: জীবনের প্রথম বুদ্ধিমানের মতো কথা বলেছো। সাবাস, মন্টুর বাপ!

মন্টুর বা: সাবাস আইফোন! পুরুষ মানুষ যা পারে না, তুই তাই পেরেছিস...      

                                                (৬)
গভীর রাতে কক্সবাজারে এক হোটেল ম্যানেজারের ঘুম ভাঙলো বোর্ডারের ফোন কলে।

ম্যানেজার: হ্যালো স্যার, বলুন কী খেদমত করতে পারি?

বোর্ডার: আমি ২০১৩ নম্বর রুম থেকে বলছি। স্ত্রীর সঙ্গে আমার ঝগড়া হচ্ছে গত এক ঘণ্টা ধরে...

ম্যানেজার: স্যার, এটা আপনাদের নিজেদের মামলা। সরি, এতে আমরা নাক গলাতে পারছি না...

বোর্ডার: আমি বলেছি এই বউ নিয়া সংসার করবো না...

ম্যানেজার: এটাও স্যার আপনার ব্যক্তিগত বিষয়। আইনত আমরা...

বোর্ডার: ও এখন জানালা দিয়ে লাফ দিয়ে মরতে চাইছে...

ম্যানেজার: স্যার, অত্যন্ত দুঃখিত। এটাও আপনাদের মিয়া-বিবির আপসের মামলা। 

বোর্ডার: চুপ কর গাধা! জানালাটা খুলছে না, জ্যাম খেয়ে আছে, এখন আমার বউ কী করবে সেটা বল আগে!

 


মন্তব্য