kalerkantho


জোকস : সবচেয়ে বড় ফুটবল পাগল!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ জুন, ২০১৮ ১৭:৩৭



জোকস : সবচেয়ে বড় ফুটবল পাগল!

ফুটবল পাগল হিসেবে সুনাম আছে মন্টুর বাপের। এটা নিয়ে সে গর্ব এবং চ্যালেঞ্জ করতে পারে যখনতখন। তার বিশ্বাস, তার চেয়ে বড় ফুটবল ফ্যান আর নেই। এবারো অনেক কষ্টে অনেক ত্যাগ স্বীকার করে বিশ্বকাপ ফাইনাল দেখতে গিয়েছে। 

সুঁই গলানোর জায়গা নেই- গ্যালারির অবস্থা এমন। চরম উত্তেজনাকর ফাইনাল চলছে। তবে মন্টুর বাপ খেলার মাঝামাঝি একটা বিষয় খেয়াল করে অবাক হলো- তার পাশের সিটটি ফাঁকা। কেউ নেই তাতে।

এমন লোক কে যে বিশ্বকাপের ফাইনাল মিস করে!

এই সিটটি আমার স্ত্রীর। গত পাঁচটি বিশ্বকাপ আমরা একসঙ্গে ফাইনাল দেখেছি, খালি সিটের অপর পাশে বসা রুশ ভদ্রলোক বলল।

বলেন কী কমরেড! তবে এবার এলেন না কেন তিনি?

তিনি তো আর বেঁচে নেই এবার!

ওহ! খুবই দুঃখিত, ব্রাদার। তবে আপনি সিটটি খামোখাই ফাঁকা রাখছেন, ছেলেমেয়ে বা ভাই-বোন কিংবা বন্ধুদের কাউকে নিয়ে আসতে পারতেন?

কেমনে নিয়ে আসব! ওরা সবাই তো তার দাফনে ব্যস্ত রয়েছে... নির্বিকার কণ্ঠে বলল রুশ।

মন্টুর বাপ সব দ্বিধা ভুলে পরম ভক্তিতে ‘গুরু গুরু’ চিৎকার দিয়ে লুটিয়ে পড়ল রুশের পায়ে...
                                                (২) 
নিজেদের টিমের চরম ব্যর্থতা নিয়ে কথা হচ্ছে হতাশায় ভেঙে পড়া তিন ফ্যানের।

প্রথম ভক্ত : যত্ত দোষ আমাদের ওই কোচ বেটার। শালা খেলাতেই পারে না দলটাকে, কী কোচিং দেয় কে জানে!

দ্বিতীয় ভক্ত : আরে না, সব দোষ আমাদের স্কোরারদের। স্কোর করা কাকে বলে তারা ভুলেই গেছে- এখানে কোচের দোষ কী?

তৃতীয় ভক্ত : আমি আমার বাবা-মা ছাড়া আর কাউকে দায়ী করতে চাই না।

প্রথম দুজন বিস্মিত। একসঙ্গে তারা চেঁচিয়ে উঠল : তারা এর জন্য দায়ী হতে যাবে কেন?

তৃতীয় ভক্ত : আমার জন্ম এই শহরে না হয়ে অন্য শহরে হলে আমি তো আর এই টিম সাপোর্ট করতাম না। তারা কেন আমাকে এই শহরে...

                                                (৩)

স্বর্গ-নরকের সীমানায় আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল নিয়ে ব্যাপক তর্ক-ঝগড়া একসময় মারামারিতে রূপ নিল। স্বর্গের প্রধান ফেরেশতা আর নরকপ্রধান শয়তান বৈঠকে বসল। 
শয়তান : আমার কাছে এই সমস্যার যুতসই সমাধান একটাই- ফুটবল ম্যাচ হয়ে যাক বেহেশত-দোজখের নো-ম্যান্স ল্যান্ডে একখান। যে টিম জিতবে, তারাই...

ন্যায়বান ফেরেশতা : দোজখের আগুনে পুড়ে পুড়ে তোমার মগজ পুরাই বাতিল হয়ে গেছে দেখছি! তুমি জান না, সব ভালো ফুটবলারই বেহেশতবাসী... ম্যাচটা শুরুতেই ওয়ান সাইডেড হয়ে যাবে। তোমরা নরকবাসী হলেও এটা অন্যায় হয়ে যাবে তোমাদের ওপর!

শয়তান : তুমিও আসল তথ্যই জানো না দেখছি- রেফারিরা সব আমার এলাকার!



মন্তব্য