kalerkantho


রিজভীর অভিযোগ

খালেদার জবানবন্দিবিচারক বিকৃত করেউদ্ধৃত করেছেন

শনিবার কালো পতাকা মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



খালেদার জবানবন্দিবিচারক বিকৃত করেউদ্ধৃত করেছেন

ফাইল ছবি

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতে দেওয়া খালেদা জিয়ার জবানবন্দি বিচারক বিকৃত করে উদ্ধৃত করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন রুহুল কবীর রিজভী। বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেছেন, ‘দুর্ভাগ্যের বিষয়, বিচারক মহোদয় দেশনেত্রীর বক্তব্যকে সম্পূর্ণ ইচ্ছাকৃতভাবে বিকৃত করেছেন কেবল সরকারপ্রধানকে সন্তুষ্ট করার জন্য। চাকরিতে পদোন্নতির জন্যই তিনি এটা করেছেন বলে জনগণ মনে করে।’

গতকাল বুধবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। তিনি জানান, সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ার প্রতিবাদে আগামী শনিবার রাজধানীতে কালো পতাকা মিছিল করবে বিএনপি।

রিজভী বলেন, “জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আদালতে জবানবন্দিতে খালেদা জিয়া এক জায়গায় বলেছিলেন, ‘নির্বিচারে গুলি করে প্রতিবাদী মানুষদের হত্যা করা হচ্ছে, ছাত্র ও শিক্ষকদের হত্যা করা হচ্ছে। এগুলো কি ক্ষমতার অপব্যবহার নয়?

অপব্যবহার আমি করেছি?’ উনি প্রশ্ন করেছেন বিক্ষুব্ধ হয়ে। এটাকে বিচারক (রায়ে) বলেছেন যে আসামি বেগম খালেদা জিয়া ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৪২ ধারার বিধান মতে আত্মপক্ষ সমর্থনমূলক বক্তব্য প্রদানের সময় নিজ জবানিতে স্বীকার করেছেন যে তিনি অপরাধ করেছেন। কিভাবে বিকৃত করে বিচারক রায় দিয়েছেন! প্রশ্নবোধক চিহ্ন তুলে দিয়ে উনি (বিচারক) দাঁড়ি দিয়ে দিয়েছেন।”

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘ন্যায়বিচারকে পদদলিত করে বিচারক ড. আখতারুজ্জামান যে কুৎসিত দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তাতে তিনি ইতিহাসে কলঙ্কিত ব্যক্তি হয়ে থাকবেন। শেখ হাসিনার জমানায় ইনসাফ যে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে তা এই ড. আখতারুজ্জামানদের মতো বিচারকদের কারণে।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘আগামীকাল (আজ) ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অথবা নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জনসভার জন্য পুলিশের কাছে আমরা অনুমতি চেয়েছিলাম। এর প্রতিবাদে আগামী শনিবার ঢাকা মহানগরে কালো পতাকা মিছিল কর্মসূচি পালন করা হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, আসাদুল করীম শাহিন, তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 


মন্তব্য