kalerkantho


চার উপাদান যোগে দারুণ এক কাপ কফি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৩৩



চার উপাদান যোগে দারুণ এক কাপ কফি

সকালের নাস্তার পর এক কাপ কফি না হলে যেন দিনটা মনের মতো শুরু হয় না। চনমনে দেহ-মন নিয়ে কাজে বেরোনোর জন্যে মনের মতো এক কাপ কফিই যথেষ্ট।

কিন্তু অনেক আশা-ভরসা নিয়ে কফি খাওয়ার পরও কোনো উপকার মেলে না। অর্থাৎ, কয়েক ঘণ্টা পর উল্টো অবসাদ ভর করে। এর কারণ আছে। আসলে কফি মানেই কিন্তু কফি পাউডার, পানি, দুধ আর চিনির মিশ্রণ নয়। দারুণ স্বাদের এবং কাজের কফির জন্যে বেশ কয়েকটি জিনিস লাগবে। এগুলো চিনে নিন।  

মসলা
শুনতে অবাক লাগবে। কিন্তু এটাই সত্যি যে, মসলাদার চায়ের মতো কফিও জাদু দেখায়। এসব মসলা অনায়াসে কফিতে যোগ করতে পারেন।

সকালের এক কাপ কফিতে আপনি নিশ্চিন্তে দারুচিনি বা লবঙ্গ বা এলাচ কিংবা ফুলের মতো ল্যাভেন্ডার দিতে পারেন। এগুলো স্বাদে ভিন্নতা তো আনবেই, সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যের বাড়তি যত্ন নেবে। মসলায় থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এগুলো দেহের দূষিত উপাদানের বিরুদ্ধে লড়াই করে।  

কোকোয়া 
যখন আপনার কফিতে মিষ্টি স্বাদের পরিবর্তে চকোলেটের তিতা স্বাদ মিলবে, তখন কিন্তু তা আরো বেশি উপভোগ্য হয়ে ওঠে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, অনেকেই অবশ্য বিষয়টা জানেন। কিন্তু তারা প্রিজারভেটিভপূর্ণ চকোলেট সিরাপ ব্যবহার করেন। এটা কিন্তু খুবই ক্ষতিকর। এটা কফিতে ক্যালোরির মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু যদি এক চামচ মিষ্টি স্বাদহীন কোকোয়া পাউডার ব্যবহার করেন, তবে মিলবে আসল স্বাদ। এতে দেহে রক্ত প্রবাহ সুষ্ঠু হবে।  

নির্যাস 
যদি কফিতে কোনো মসলা বা কোকোয়া না চান, তবে নারকেল বা ভ্যানিলা নির্যাসের কথা ভাবতে পারেন। এগুলোও স্বাদ বদলে দেবে। জিহ্বায় হালকা একটা স্বাদ আনবে। সেই সঙ্গে কফিকে করবে আরো বেশি উপভোগ্য।

লবণ
অবাক হবেন না। কফিতে সামান্য পরিমাণ লবণ যোগ করতে পারেন। যদি কফিটা বেশি তেতো লাগে, তাহলে এই বুদ্ধি খাটাতে পারেন। তবে অবশ্যই বেশি লবণ নেবেন না। এতে স্বাদ নষ্ট হবে। আর কাঁচা লবণ অতিরিক্ত খাওয়া এমনিতেই স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো না।  
সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া 


মন্তব্য