kalerkantho


সুখি সম্পর্ক চাইলে এই ১১ ধরনের লোককে এড়িয়ে চলুন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৮:৪৭



সুখি সম্পর্ক চাইলে এই ১১ ধরনের লোককে এড়িয়ে চলুন

এমন কিছু লোক আছেন যারা স্বাস্থ্যকর সম্পর্ক গড়তে জানেন না। আর তাদের সঙ্গে বাস করাটাও বেশ কঠিন।

আসুন জেনে নেওয়া যাক এরা কারা।

১১. সবকিছুতেই সমালোচক
এরা আপনার কোনো কিছুই পছন্দ করেন না। এরা সবসময়ই আপনার খুঁত ধরবে এবং আপনাকে বদলানোর চেষ্টা করবে। এরা অনেক সময় ভাবে যে এর মাধ্যমে তারা আপনার যত্ন নিচ্ছেন। কিন্তু এ ধরনের সম্পর্ক আপনার জন্য কোনোভাবেই ভালো নয়।

১০. বিষাদগ্রস্ত হিংসুটে
একজন হিংসুটে লোকের সঙ্গে জীবন হলো অনেকটা একটি ইটালিয়ান সোপ অপেরার মতো। আপনার পার্টনার যদি আপনার বন্ধু, সহকর্মী, পরিবার, অতীতের পার্টনারকে নিয়ে হিংসে করেন তাহলে তা অশনি সঙ্কেত। অনবরত ঈর্ষার কারণে কেউই পাগল হতে চায় না। তাই না?

৯. মিথ্যুক
মিথ্যাবাদীরা প্রথম দিন থেকেই প্রতারণা করতে থাকে।

এবং তারা কখনোই থামে না। এরা এমনকি পার্টনারকেও বিশ্বাস করতে পারে না। আর পারস্পরিক বিশ্বাস ছাড়া কোনো সম্পর্কেরই ভবিষ্যত অন্ধকার।

৮. নাটুকে
এই ধরনের লোকদের জন্য সবকিছুই ট্রাজেডি। তারা মনে করে পুরো বিশ্ব তাদের বিরুদ্ধে। এদের বিশ্বাস সহকর্মী থেকে শুরু করে ভালোবাসা মানুষ এবং পরিবারও তাদের বিরুদ্ধে।

৭. বয়স্ক শিশু
এরা কখনোই নিজেরা সিদ্ধান্ত নেয় না। এবং পার্টনারের ঘাড়েই সবকিছু চাপিয়ে দিতে চায়। এদের সবসময় একজন বাবা বা মা দরকার হয় প্রতিটি কাজের দিক-নির্দেশনা দিতে। এই ধরনের লোকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে দুবার ভাবুন।

৬. কর্মাসক্ত
যারা পার্টনারের চেয়ে কাজকে বেশি গুরুত্ব দেয় তারা কখনোই বিশ্বাসযোগ্য নয়। প্রথমে, আপনি হয়তো এই ধরনের কঠোর পরিশ্রমী লোককে নিয়ে গর্ব বোধ করতে পারেন। কিন্তু পরে একটা সময় গিয়ে আপনি নিঃসঙ্গতাবোধে আক্রান্ত হতে পারেন।

৫. তেল ও বেগুন
ভিন্ন ভিন্ন লোকেরা পরস্পরকে আকর্ষণ করে। কিন্তু পার্থ্যক্য যদি হয় আকাশ-পাতাল তাহলে এবং যদি কমন কোনো বৈশিষ্ট্য না থাকে তাহলে শুধু ঝগড়া করেই জীবন কাটাতে হবে।

৪. দস্যু
এরা প্রথমে আপনার আস্থা অর্জন করবে। এরপর তা ব্যবহার করে আপনার কাছ থেকে শুধু টাকা খসাবে। তাদের সব সমস্যা সমাধানের জন্য আপনার সব অর্থ খরচ করাই যেন একটি নিয়ম হয়ে পড়বে।

৩. মাদকাসক্ত
এরা তাদের ভালোবাসার মানুষের জন্যও নিজেদের আসক্তি ত্যাগ করতে চায় না। একটি পরিবারকে ধ্বংস করে দেয় মাদকাসক্তি।

২. স্বার্থপর
স্বার্থপররা শুধু নিজেদেরকে নিয়েই মগ্ন থাকে না। বরং এরা অন্যদের নিয়ে ভাবতেও ভুলে যায়। এবং এটাকেই স্বাভাবিক মনে করে। অনেক সময় এমন পার্টনাররা আপানাকে আপনার দিন কেমন যাচ্ছে সে ব্যাপারেও জিজ্ঞেস করতে ভুলে যায়। সুতরাং কেন তারা আপনার যত্ন নিবে?

১. বিজয়ী 
এরা জানেনা প্রাইভেট স্পেস বলতে কী বুঝায়। এরা সবসময় আপনার পিছু লেগে থাকবে এবং আপনার প্রতিটি ফোন কল বা ওয়েবসাইট সার্চ চেক করবে। এরা সবসময়ই আপনার মাথা কুটে খাবে। এরা সবসময়ই বিজয়ী হতে চায়। কিন্তু আমাদের সকলেরই কিছু না কিছু ব্যক্তিগত বিষয় তো থাকা উচিত।

 


মন্তব্য