kalerkantho


খেলার আগে-পরে যা খাবেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মে, ২০১৮ ০৯:৪২



খেলার আগে-পরে যা খাবেন

ছবি অনলাইন

শরীর সুস্থ রাখার জন্য খেলাধুলা বা শারীরিক অনুশীলনের পাশাপাশি সঠিকভাবে খাবার গ্রহণ করা উচিত। খেলা বা শারীরিক অনুশীলনের আগে ও পরের খাবারে যথেষ্ট মনোযোগী হতে হবে। এ ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় লক্ষ রাখা উচিত।

আধাঘণ্টা আগে খান

খাওয়াদাওয়া করে সঙ্গে সঙ্গে মাঠে বা জিমে নেমে যাওয়া যাবে না। এ জন্য ২০ মিনিট থেকে আধাঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। খেলার আগে সাধারণ কার্বোহাইড্রেট খাবার, ফলমূল (যেমন খেজুর, বাদাম) ইত্যাদি খাওয়া যেতে পারে। যেকোনো অনুশীলনের আগেই ভারী খাবার খাওয়া যাবে না।

পরিশ্রম বুঝে খাবার

যদি পরিশ্রমসাধ্য স্ট্রেনথ সেশন থাকে তাহলে প্রোটিন খেতে হবে। এটি দেহের মাংসপেশির ক্ষতি পূরণ করে দেবে। তবে কার্ডিও করতে হলে কিছু কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিন উভয়ের দিকেই গুরুত্ব দিতে হবে। এতে এনার্জি পাওয়া যাবে।

খাবারের আকার

খেলার সময় যত কাছে আসবে, খাবারও তত হালকা করতে হবে। খাওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যেই যদি অনুশীলনে যেতে হয়, তাহলে এমন খাবার খেতে হবে, যা সহজে হজম হয়ে যায়। এ সময় কলা কিংবা আপেল খাওয়া যেতে পারে। এগুলো সহজে হজম হবে আবার উদ্যমও জোগাবে। দুধের বিকল্প হিসেবে দই খাওয়া যেতে পারে।

খেলার পর

খেলার পর তাজা জুস ও প্রোবায়োটিক জুস পান করতে হবে। কঠিন পরিশ্রমের পর দেহের মাংসপেশিগুলো যেন ক্ষতি কাটিয়ে তুলতে পারে—সেদিকে মনোযোগী হতে হবে। এ জন্য ডিম, মুরগির মাংস, টার্কি, বাদামি রুটি বা চাল, পনির, বাদাম ও সবজি খেতে হবে।

পর্যাপ্ত পানি

খেলাধুলার সময় দেহের পানির চাহিদা পূরণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে খেলা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বেশি পানি পান করা যাবে না। বিরতি দিয়ে ধীরে ধীরে পানি পান করতে হবে। খেলার দুই ঘণ্টা আগে আধা লিটার, ২৫০ মিলি পানি ওয়ার্মআপের সময় এবং খেলার সময় প্রতি ২০ থেকে ৩০ মিনিট পর পর ১৫০ থেকে ২০০ মিলি পানি পান করতে হবে। খেলা শেষের ৩০ মিনিটের মধ্যে আরো ২৫০ মিলি পানি পান করতে হবে।

হিন্দুস্তান টাইমস অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব


মন্তব্য