kalerkantho


আপনাকে বদলে দেবে 'প্রোমোডরো'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ জুন, ২০১৮ ১৮:৫২



আপনাকে বদলে দেবে 'প্রোমোডরো'

'প্রোমোডরো' এমন এক পদ্ধতি ও কৌশল যা কোনো কাজ আজই সম্পন্ন করতে সহায়তা করবে। ভবিষ্যতের সময় বাঁচিয়ে কাজ করার কৌশলই শেখায় প্রোমোডরো। এখানে শিখে নিন আপনার জীবনে  প্রোমোডরো কৌশল বাস্তবায়নের উপায়। 

১. যে কাজই করেন না কেন, আগে বুঝে নিন কাজটি পুরোপুরি সম্পন্ন করতে আসলে কত সময় নেবে। কখনো স্পষ্ট হিসেবে করে দেখেছেন যে, আপনার সময় আসলে কোথায় খরচ হয়? এবার এই হিসেব পরিষ্কার করে দেবে প্রোমোডরো। এর টু-ডু পাতা আপনার কোন কাজের পেছনে কত সময় ব্যয় হলো তা দেখিয়ে দেবে। 

২. কাজের মাঝের বাধাগুলো একেবারে দূর করে দিন। মনে মনে ঠিক করে নেবেন, কোনো কাজ শুরু করলে অন্তত ২৫ মিনিট সেখান থেকে মনোযোগ অন্যদিকে দেবেন না। আধুনিক জীবনে বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের এই সমস্যা করে থাকে। এদিক সেদিক থেকে বাড়তি কাজ আসতে পারে। কিন্তু মূল কাজ থেকে কোনভাবেই দৃষ্টি সরানো যাবে না। 

৩. কাজ সম্পন্ন করতে যা করতে হচ্ছে তার পেছনে কতটা শ্রম দিতে হচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। আপনি যখন প্রোমোডরোর কৌশল শিখে ফেলবেন, তখন বুঝে নেবেন যে আগামীকালের কাজ শেষ করতে আসলে কতটুকু শ্রম দিতে হবে। একটা কাজ সম্পন্ন করতে ১০ মিনিট লাগবে নাকি একমাস লাগবে, আপনি সহজে অনুধাবন করতে পারবেন। 

৪. প্রোমোডরো পদ্ধতিকে আরো বেশি শক্তিশালী করে তুলুন। এতে করে আপনার কর্মপদ্ধতি আরো বেশি কার্যকর হবে। প্রোমোডরো পদ্ধতি হলো তাই যার মাধ্যমে কোনো কাজ শেষ করে আনার আগেই করণীয় সম্পর্কে বুঝে নেয়া যায়। 

৫. সময়সূচি নির্ধারণ করুন। কাজটা সম্পন্ন করতে সময় বেঁধে দিন। এতে করে বাড়তি সময় ঢালতে হবে না যা নষ্ট হয়। সময়টা কাজে লাগবে। 

৬. আপনাকে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছানোর পথ সৃষ্টি করে দেয় প্রোমোডরো। এর জন্যে ভুল কাজগুলো সহজেই চিহ্নিত করা দরকার। আবার আগেরটার মতোই এককাজে অতিরিক্ত সময় দেয়া যাবে না। একজন লেখক তার লেখা অতিরিক্ত সময় রিভিশন দিচ্ছেন কিনা তা বুঝে নিতে হবে। নয়তো, সেখানে সময়টার অপচয় ঘটবে। 
সূত্র: ফ্রান্সেসকো সিরিলো 


মন্তব্য