kalerkantho


মায়ের মৃতদেহের সঙ্গে ৩ দিন কাটালেন ছেলে!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১০:৪৬



মায়ের মৃতদেহের সঙ্গে ৩ দিন কাটালেন ছেলে!

প্রতীকী ছবি

রবিনসন স্ট্রিটের কঙ্কাল কাণ্ডের ছায়া এবার দুর্গাপুরে। মায়ের মৃতদেহের সঙ্গে ৩ দিন কাটালেন মানসিক ভারসাম্যহীন ছোট ছেলে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুরের বিধাননগর এলাকার রবীন্দ্রপল্লীতে।  

জানা গেছে, ভাড়া বাড়িতে মা সানন্দা নন্দীর সঙ্গে থাকতেন ছোট ছেলে ইন্দ্রদীপ নন্দী। গত ৩ দিন ধরে ঘর থেকে পচা গন্ধ পাচ্ছিলেন প্রতিবেশীরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেন তাঁরা। গন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে আবিষ্কার হয় সানন্দা দেবীর দেহ। প্রতিবেশীরা ঘরে ঢুকে দেখেন বিছানায় পড়ে রয়েছে মৃতদেহ। সারা শরীরে পচন ধরে গিয়েছে। অথচ, সেই গন্ধময় পরিবেশে দিব্যি রয়ে গিয়েছেন তাঁর ছোট ছেলে ইন্দ্রদীপ।  

ইন্দ্রদীপের বয়ান অনুযায়ী, ৩ দিন আগে সানন্দা নন্দীর মৃত্যু হয়।

এনটিএস থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

সানন্দা নন্দীর বড় ছেলে ইন্দ্রনীল কাছেই অন্য একটি বাড়িতে থাকেন। ইন্দ্রনীলের দাবি, মায়ের সঙ্গে তাঁর শেষ দেখা হয়েছিল গত রবিবার। তখনও পর্যন্ত সানন্দা নন্দী সুস্থ ছিলেন বলেই জানিয়েছেন তিনি।  

এখন প্রশ্ন, মায়ের মৃত্যুর পর ৩ দিন কেটে গেলেও কেন জানতে পারলেন না ইন্দ্রনীল? ছোট ভাই ইন্দ্রদীপ কি তাঁকে কিছুই জানাননি? নাকি এসবের পিছনে রয়েছে অন্য কোনো রহস্য? উত্তর খুঁজছে পুলিশ।
সূত্র : জি নিউজ


মন্তব্য