kalerkantho


মেয়েকে ১৫ বছর ঘরে আটকে রেখেছেন বাবা-মা, তারপর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৯:৩৯



মেয়েকে ১৫ বছর ঘরে আটকে রেখেছেন বাবা-মা, তারপর

মেয়ে মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন। সে কারণে তাকে ঘরের মধ্যে আটকে রাখতেন বাবা-মা। গত ১৫ বছর বাড়ির বাইরে বের হতে দেননি। সেটাই কাল হয়ে দাঁড়াল। অতিরিক্ত ঠাণ্ডা লেগে জমে গিয়ে শেষাবধি মৃত্যু হয়েছে ওই তরুণীর।

ঘটনাটি ঘটেছে জাপানের টোকিওতে। তরুণীর নাম আইরি। তার বাবা ইয়াসাতুকা কাকিমোতো এবং মা ইউকারিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরিবারের দাবি, আইরি মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। সহিংস আচরণ করতেন সবার সঙ্গে।

সে কারণে ১৫-১৬ বছর বয়স থেকে তাকে ঘরে আটকে রাখা হতো। দিনে মাত্র একবার খাবার দেওয়া হতো আইরিকে। ঘরের ইন্টারকমের সাহায্যে বাড়ির বাকিদের সঙ্গে কথা বলতেন তিনি। মোট ১০টি সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো রয়েছে সেই ঘরে।

বছরের পর বছর বাইরের আলো-বাতাস থেকে দূরে থাকার ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন আইরি। বিভিন্ন ধরনের রোগ ও অপুষ্টির কারণে তার ওজন কমে ১৯ কেজি হয়ে গিয়েছিল। অবশেষে অতিরিক্ত ঠাণ্ডা লেগে জাপানের 'দ্য ম্যাডওম্যান ইন দ্য অ্যাটিক'-এর মৃত্যু ঘটে।

আইরির মৃত্যুর পর মরদেহ লুকিয়ে রাখার চেষ্টার অভিযোগে তার বাবা-মাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তদন্তে উঠে আসে, ইচ্ছার বিরুদ্ধে ওই ঘরে আটকে রাখা হতো আইরিকে। সে কারণে আইরির বাবা-মার বিরুদ্ধে আরো শক্তিশালী মামলা করার পরিকল্পনা করেছে টোকিও পুলিশ।


মন্তব্য