kalerkantho


পৃথিবীর বৃহত্তম নির্লবণীকরণ প্রকল্প দুবাইয়ে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৬:৫৮



পৃথিবীর বৃহত্তম নির্লবণীকরণ প্রকল্প দুবাইয়ে

আবুধাবি নির্মাণ করতে যাচ্ছে পৃথিবীর বৃহত্তম লবণাক্ততা-মুক্তকরণ (নির্লবণীকরণ বা ডিস্যালিনেশন) প্লান্ট। এই প্লান্টটি কাজ শুরু করলে তা থেকে আমিরাতজুড়ে সুপেয় পানি সরবরাহ করা যাবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। 

আবুধাবি পানি ও বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ (এডিডাব্লিউইএ) জানিয়েছে, প্লান্টটি তার কার্যক্রম শুরু করলে রিভার্স অসমোসিস টেকনোলজি ব্যবহার করে প্রতিদিন দুই শ মিলিয়ন গ্যালন সুপেয় পানি উৎপাদন করতে পারবে। জানুয়ারির ২০ তারিখ পর্যন্ত চলমান আবুধাবি রক্ষণাবেক্ষণ সপ্তাহের অধীনে বিশ্ব পানিবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন ও বিশ্ব ভবিষ্যৎ জ্বালানিবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলনে এই প্রস্তাবনা আনা হয়েছে।

আরো পড়ুন : বরফের আস্তরণ ভেঙে বেরিয়ে আসছে নাসারন্ধ্র, কার?

দুই বিলিয়ন দিরহাম ব্যয়ে নির্মিতব্য এই মেগা প্রকল্পটি আবুধাবির ৪৫ কিলোমিটার উত্তরে আল তাওয়েলাহতে অবস্থিত। আগামী বছর এর কাজ শুরু হবে এবং এটা শেষ হতে দুই বছর লাগবে বলে জানা গেছে। পানির সরবরাহ বৃদ্ধি এবং ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণই এই প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। আবুধাবি এবং আমিরাতের উত্তরাংশে পানির চাহিদা পূরণই এই মেগা প্রকল্পের মূল লক্ষ্য। প্রকল্পটি দুই ভাগে বিভক্ত। প্রতি ভাগে প্রতিদিন ১০০ মিলিয়ন গ্যালন করে পানি নির্লবণীকরণ হবে।

আরো পড়ুন : এক লাখ ১৫ হাজার টাকা খেয়ে ফেলেছে ষাঁড়টি!

এডিডাব্লিউইএ-এর ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ড. সাইফ সালেহ আল সিয়াইরি প্রকল্পটির উদ্বোধন করে বলেন, এটি একটি উচ্চাভিলাষী প্রকল্প, ব্যয়বহুলও বটে। প্রতি গ্যালন পানি নির্লবণীকরণে খরচ হবে ১০ দিরহাম। যদিও প্রকল্পটি ব্যয়বহুল, তবুও এ সময় এমন একটি প্রকল্প আমিরাতের জন্য জরুরি ছিল। 

উল্লেখ্য, আবুধাবিতে বর্তমানে পানি নির্লবণীকরণ ও উৎপাদনক্ষমতা প্রায় ৯৬০ মিলিয়ন গ্যালন। যা করতে ১০টি নির্লবণীকরণ প্রকল্প নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। 
সূত্র : খালিজ টাইমস    


মন্তব্য