kalerkantho


'বাঁহাতি হওয়া কি দোষের কিছু?'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ জুন, ২০১৮ ১৩:১৯



'বাঁহাতি হওয়া কি দোষের কিছু?'

মানুষের জীবনে নানা প্রতিকূলতা আসে। কিছু আসে মানুষের কুসংস্কারাচ্ছন্ন দৃষ্টিভঙ্গির কারণে। আবার কিছু আছে যার পেছনে কোনো যুক্তি মেলে না। আমাদের জীবনে অনেক পরিস্থিতিই অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে অভিশাপের মতো দেখা দেয়। এখানে নিজের জীবন থেকে তেমনই এক বাজে অবস্থার কথা তুলে ধরেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নারী। এখানে তার ভাষাতেই বয়ানটা শোনা যাক। 

'প্রতিটা যন্ত্রণাদয়ক পরিস্থিতিতে দেখেছি মা আমাকে উদ্ধার করেছেন। চকোলেট খেলে বাবা যখন বকতেন, তখনও মা নিজের ঘাড়ে দোষ নিতেন। আর এটা ওর দোষ না, পড়া শেষ করার কারণে ওকে আমিই দিয়েছি বলে উদ্ধার করতেন মা। 

আরেকদিন স্কুলের শিক্ষক যখন আমার মাটিমাখা স্কার্ট দেখিয়ে অভিযোগ করলে, তখনও মা বিনয়ের সঙ্গে তাকে উত্তর দিয়েছেন। সেখানে দোষটা তার ঘাড়েই নিয়েছেন। বলেছেন যে তিনি ধুয়েও এই ময়লা সাফ করতে পারেননি। পরের মাসের বেতন পেলে নতুন একটা কিনে দেবেন বলেও কথা দিয়েছিলেন শিক্ষককে। 

অথচ তিনিই আমার বাম হাতের আঙ্গুলগুলোতে আঘাত দেখে শিউরে ওঠেননি। কোনো মলম নিয়ে দৌড়ে আসেননি। ভালো খাবার দিয়ে যন্ত্রণা ভুলিয়ে রাখতে চাননি। বরং উচ্চকণ্ঠে বলেছেন, এটা তোমার পাওনা ছিল। তিনি আমার বাবাকেই একটা কাঠের স্কেল কিনে দিয়েছিলেন প্রয়োজনে তা আমার হাতে ভাঙার জন্যে। 

পরিবর্তনটা ধীরে ধীরে আসলো। কেউ বুঝলো না, একটা বিষয় আমার জীবনে কতটা যন্ত্রণা হয়ে দেখা দিতে থাকলো। একটা সময় থেকে কলম বা পেন্সিল আমার বাম হাত দিয়ে তুলতে হতো। একদিন ডাক্তার আঙ্কেল আরেকটা বিষয় খেয়াল করলেন। তিনি দেখলেন আমি তোতলাচ্ছি। একটু চিন্তিত হলেন তিনি। কিন্তু বাবা বললেন, আরে ও দুষ্টু। সব বাজে অভ্যাসগুলো চলে আসছে ওর মধ্যে। 

তো কী কী বাজে অভ্যাস, জিজ্ঞাসা করলেন ডাক্তার আঙ্কেল। বাবা উত্তর দিলেন, ইদানিং তোতলাচ্ছে। বাম হাতেও খাবার খায়। তোতলামি নিয়ে ডাক্তারের কিছুটা দুশ্চিন্তা থাকলেও তিনি বাম হাতে কিছু করার বিষয়টা নিয়ে কথা বললেন। বাঁহাতি হওয়াটা কোনো অবস্থাতেই দৃষ্টিকটু নয়। এটা কোনো শারীরিক প্রতিবন্ধকতাও নয়। এটা কোনো বাজে অভ্যাসও নয়। মানুষ স্বাভাবিকভাবেই বাঁহাতি হয়। 

আমার বাঁহাতের ক্ষতগুলো সেরেছে ঠিকই। কিন্তু বাম হাতের কাজগুলো বাড়তেই থাকলো। মানে প্রায় সব কাজেই আমার বাঁ হাতটা আগে চলে যায়। অর্থাৎ, আমি বাঁহাতি হয়েছি। তবুও বাবা আর মায়ের কিছুটা দুশ্চিন্তা ছিল। আমি বুঝি না, বাঁহাতি হলে দোষটা কোথায়? বাঁহাতি হওয়া কি দোষের কিছু?
সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস 



মন্তব্য