kalerkantho


বিজলি রিকশায় প্যাডেলে তৈরি বিদ্যুতে জ্বলে সিগনাল বাতি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ জুলাই, ২০১৮ ১৪:৩০



বিজলি রিকশায় প্যাডেলে তৈরি বিদ্যুতে জ্বলে সিগনাল বাতি

দেশের ঐতিহ্যবাহী চিরচেনা রিকশাকেই একটু নতুনভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে বিজলি রিকশায়। চালকের প্যাডেলে বিদ্যুৎ তৈরী হয়ে তা কাজে লাগে ইন্ডিকেটর, হর্ন ও লাইটের ক্ষেত্রে।

বাংলাদেশে প্রচলিত রিকশাগুলোতে নিরাপত্তা সামগ্রীর অপ্রতুলতা অত্যন্ত প্রকট। রিকশাগুলো ডানে বায়ে যাওয়ার সময় কোনো সিগন্যাল দেওয়ার ব্যবস্থা নেই। অনেকেই হাত ব্যবহার করে সিগন্যাল দেন। তবে তা রিকশা চালানো অবস্থায় দেওয়াটা কঠিন। এ কারণে প্রায়ই সিগন্যাল দেয়না রিকশাগুলো। এতে দুর্ঘটনার আশঙ্কাও বাড়ে।

অন্ধকারে বাতি না থাকায় প্রচুর রিকশা দুর্ঘটনার শিকার হয়। এসব কারণে রিকশাতেও নিরাপত্তার সরঞ্জাম থাকা অত্যন্ত জরুরি। তবে এসব সরঞ্জাম সংযোজন করা সহজ নয়। এজন্য প্রয়োজন হয় মূল্যবান যন্ত্রপাতি, যা রিকশা মালিক ও চালকদের পক্ষে সংগ্রহ করা কঠিন। সম্প্রতি একধরনের ব্যাটারিচালিত রিকশায় এসব সামগ্রী থাকলেও সেগুলো ঢাকা ও চট্টগ্রাম শহরে নিষিদ্ধ।

রিকশার এসব সীমাবদ্ধতা দূর করতে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তৈরি করেছে আমার সোর্স নামে একটি ডায়নামোটর ও নিয়ন্ত্রণ বক্স। এতে সিগন্যাল দেওয়ার ব্যবস্থা, লাইট ও হর্ন সংযুক্ত রয়েছে। এছাড়া রিকশাটিতে গিয়ার সংযুক্ত থাকায় তা চালানোও অনেক সহজ।

নির্মাতারা জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে এতে যুক্ত হতে পারে সোলার প্যানেলও। বিজলি রিকশায় বিদ্যুত তৈরী হচ্ছে চালকের প্যাডেলে। এরপর তা ব্যবহৃত হচ্ছে ডিভাইসটি চালাতে।

ডিভাইসটি নির্মাতা বেসরকারি সংস্থাটি বর্তমানে ফরিদপুরে এ প্রযুক্তির রিকশা চালু করতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে। ভবিষ্যতে তাদের পর্যায়ক্রমে সারা বাংলাদেশেই এ ধরনের রিকশা প্রসারের পরিকল্পনা রয়েছে।

সূত্র : বিবিসি বাংলা



মন্তব্য