kalerkantho


‌'আল্লাহ আমার সোনার চান ফিরাইয়া দাও'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ জুলাই, ২০১৮ ০১:৩১



‌'আল্লাহ আমার সোনার চান ফিরাইয়া দাও'

গরুর প্রতি মানুষের অসাধারণ ভালোবাসার উদাহরণ দিলেন বরগুনার রুবি। রুবি বামনা উপজেলার লঞ্চঘাট এলাকার অতিদরিদ্র এক নারী। রুবির স্বামীর নাম ছগির মিয়া। নদী ভাঙনে তারা সব হারিয়েছেন। সংগ্রাম এনজিও থেকে ত্রাণ পাওয়া ঘরে দুই মেয়ে নিয়ে বসবাস করেন রুবি। 

রুবি একটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে গত দুই বছর আগে একটি গরু ক্রয় করেন। দিনে দিনে গরুটিও অনেক বড় হয়েছে। গরুকে যত্ন করে স্বপ্ন বুনেছেন প্রতিদিন। মেয়েদের বিয়ে, সংসার সমৃদ্ধ- সব স্বপ্ন গরু নিয়েই। বৃহস্পতিবার বিকাল ৬টার দিকে হঠাৎ করে গরুটি মৃত্যুবরণ করে। 

রুবি এতটাই দরিদ্র যে গরু মারা যাওয়ার পর তার সব স্বপ্ন ধূলিস্যাৎ হয়ে গেছে। তার পক্ষে এই ঋণ পরিশোধ করা কিছুতেই সম্ভব নয়। আগামীতে তার জন্য অপেক্ষা করছে নিদারুন কষ্টকর ভবিষ্যৎ।

রুবির গগনবিদারী চিৎকারে আকাশ ভারী হয়ে যায়। সাধারণত আপন মানুষের মৃত্যুতেও এমন কান্না দেখতে পাওয়া যায় না। রুবির কান্না উপস্থিত সবাইকে কাঁদিয়েছে। বলে, 'আল্লাহ আমার সোনার চান ফিরাইয়া দাও-আমারে নিয়া যাও'। নিজের সন্তানের চেয়েও গরুর প্রতি বেশি মায়া ছিল রুবির। কারণ এই গরুকে ঘিরেই তিনি ভবিষ্যৎ স্বপ্ন দেখতেন। আজ তার গরুও নেই, স্বপ্নও নেই। রুবির সামনে শুধুই অন্ধকার।

গরুর প্রতি রুবির এতো মায়া তারই উদাহরণ দেখল গ্রামবাসী। তার গরুর মৃত্যুর পর রুবির চিৎকারে এলাকার বাতাস ভারী হয়ে যায়। রুবির জন্য বরগুনা জেলা প্রশাসনসহ সমাজের বৃত্তবানরা সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিন।



মন্তব্য