kalerkantho


আহা! সরকারি সব প্রতিষ্ঠান যদি এভাবে সেবা দিতে পারতো ...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১০:০১



আহা! সরকারি সব প্রতিষ্ঠান যদি এভাবে সেবা দিতে পারতো ...

এই প্রথমবার বাংলাদেশের কোনো একটা সার্ভিস নিয়ে প্রশংসা করা যেতেই পারে। বরং প্রশংসা না করাটা অনুচিত হবে।

গতকাল সন্ধ্যা থেকেই উচ্চ শব্দে হিন্দি, ইংরেজি, বাংলা সব মিলিয়ে গান বাজানো হচ্ছিলো। রাত বারোটা পর্যন্ত আনন্দ উৎসব করা যেতেই পারে। কিন্তু রাত দেড়টার পরেও চলতেছে সেই উচ্চ শব্দে গান বাজানো।

অতঃপর ...

ফোন দিলাম ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের #৯৯৯ নাম্বারে। সবচেয়ে অবাক ব্যাপার হলো তাদের ভাষা! ব্যবহার! সরকারি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান সেবা দিচ্ছে কর্পোরেট ক্লায়েন্টের মতো! 

স্যার কিভাবে হেল্প করতে পারি? স্যার এলাকার নাম কি? এইটা কোন থানার আওতাধীন? স্যার আমরা নিকটস্থ থানার সাথে কনফারেন্স কল করিয়ে দিচ্ছি একটু অপেক্ষা করুন! 

নিকটস্থ থানার সাথে কনফারেন্স করিয়ে দিলো। থানা থেকে দায়িত্বরত অফিসার বললো, তারা ব্যবস্থা নিচ্ছে। কথা শেষ করার পর ৯৯৯ এর অপারেটর বললো, সেবা নেয়ার জন্য ধন্যবাদ (!) 

১০ মিনিট পর ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত ও সাউন্ড বন্ধ।

আহা! সরকারি সব প্রতিষ্ঠান যদি এভাবে তড়িৎগতিতে ও কার্যকর সেবা দিতে পারতো।

ইমাম হাসান রুমীর ফেসবুক থেকে


মন্তব্য