kalerkantho


প্রাডো গাড়িতে মিলল বাঘ-সিংহের চার বাচ্চা

ফখরে আলম, যশোর    

১৩ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:০০



প্রাডো গাড়িতে মিলল বাঘ-সিংহের চার বাচ্চা

ভারতে পাচারকালে দুই সিংহ ও দুই চিতাবাঘ শাবক উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় দুই পাচারকারীকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার বশিকুড়া গ্রামের আহাদ আলী সরদারের ছেলে কামরুজ্জামান বাবু (৩১) ও নরসিংদীর পলাশ উপজেলার বকুলনগর গ্রামের মান্নান ভূঁইয়ার ছেলে রানা মিয়া (২৮)। এ ছাড়া পাচার কাজে ব্যবহৃত দামি একটি প্রাডো জিপ জব্দ করা হয়েছে।

আজ সোমবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে শহরতলীর চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকায় পুলিশ একটি তল্লাশি চৌকি বসিয়ে শাবকগুলি উদ্ধার করে। ভারতে পাচারের জন্য শাবকগুলি একটি প্রাডো গাড়িতে (ঢাকা মেট্রো-ঘ ১৩-২৭৯০) ঢাকার উত্তরা থেকে আনা হচ্ছিল। 

যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, গোপন সূত্রে তারা জানতে পারেন চারটি বাঘের বাচ্চা পাচারের উদ্দেশ্যে বেনাপোল নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে শাবক চারটি উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সৈয়দ বায়েজিদের নেতৃত্বে এসআই জামাল হোসেন, এএসআই জহির, আমির ও কনেস্টবল আব্দুল গনি গোপন খবরের ভিত্তিতে ওই স্থানে তল্লাশি চৌকি বসিয়ে অপেক্ষা করতে থাকেন। ১০টা ১৫ মিনিটের দিকে প্রাডো গাড়িটি বেনাপোলের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে সেটি  থামানো হয়। পরে গাড়ি তল্লাশি করে দুটি কাঠের বাক্স থেকে শাবক চারটি উদ্ধার করে পুলিশ লাইনে নিয়ে যাওয়া হয়।

এসআই বায়েজিদ কালের কণ্ঠকে বলেন, "প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক দুইজন স্বীকার করেছেন উত্তরার এক ব্যক্তি তাদেরকে শাবক চারটি নাভারনের আক্কাস ও ইদ্রিসের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য বলেন। ধারণা করা হচ্ছে এরা আন্তর্জাতিক বন্যপ্রাণি  পাচারকারী চক্রের সদস্য। শাবকগুলো এরা ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলেন।" 

এসআই বায়েজিদ আরও বলেন, "প্রথমে খবর রটে চারটি বাঘের বাচ্চা উদ্ধার করা হয়েছে। এ খবর জেনে সাংবাদিকরা পুলিশ লাইনে ভিড় করেন। পরে বন কর্মকর্তারা এসে নিশ্চিত করেন শাবকগুলি দুইটি চিতা বাঘের ও দুইটি সিংহের।

যশোরের বন সংরক্ষক মইনউদ্দিন খান বলেন, "প্রাথমিকভাবে দেখে মনে হচ্ছে দুটি বাচ্চা সিংহের আর দুটি বাচ্চা লেপার্ড ক্যাটের (চিতা বাঘের মতো দেখতে তবে আকারে ছোট)। সিংহের বাচ্চা দুটির বয়স ৪-৫ মাস আর লেপার্ড ক্যাটের বাচ্চার বয়স দুই মাস।" 

এদিকে, খুলনা থেকে বন্যপ্রাণি সংরক্ষণ বিভাগের একটি প্রতিনিধি দল যশোরে এসেছে। তারাও একই মত দিয়েছেন। বন্যপ্রাণি আটকের ঘটনায় যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। শাবক চারটি ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বন বিভাগের কর্মকর্তারা। 



মন্তব্য