kalerkantho


'২০৩০ সালের মধ্যে তরল বর্জ্য নির্গমণ শূন্যমাত্রায় নামিয়ে আনা হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:৪৪



'২০৩০ সালের মধ্যে তরল বর্জ্য নির্গমণ শূন্যমাত্রায় নামিয়ে আনা হবে'

২০৩০ সালের মধ্যে তরল বর্জ্য নির্গমণকারী সব কারখানাকে শূন্যমাত্রায় নামিয়ে আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।  

আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মমতাজ বেগমের এক প্রশ্নের জবাবে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়র হোসেন মঞ্জু আরো বলেন, ‘অপরিশোধিত তরল শিল্পবর্জ্য ঢাকার চারপাশের নদী দূষণের অন্যতম কারণ।

দূষণরোধে তরল বর্জ নির্গমণকারী সকল শিল্প কারখানায় ইটিপি স্থাপন ও পরিবেশগত ছাড়পত্র গ্রহণ বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। এছাড়া নগরবাসীকে দূষণের হাত থেকে রক্ষার জন্য এরমধ্যে শিল্প দূষণ নিয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যে ঢাকা ও চট্টগ্রাম জেলার জিআইএস ডাটাবেইজ করা হয়েছে। ’

তিনি বলেন, ঢাকার চারপাশে প্রবাহিত নদীগুলোর পানি দূষণের অন্যতম কারণ রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকার ট্যানারী শিল্প কারখানা থেকে নির্গত তরল বর্জ্য। এজন্য হাজারীবাগের ট্যানারি বন্ধ করে কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার স্থাপন করে সাভারে চামড়া শিল্পনগরীতে স্থানান্তর করা হয়েছে।  


মন্তব্য