kalerkantho


রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনা

নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছেন বিএনপি নেত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:১২



নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছেন বিএনপি নেত্রী

দুর্নীতি মামলায় ফেঁসে যাবেন এটা জেনেই আগামী নির্বাচনকে বানচাল করতে বিএনপি নেত্রী নানা ষড়যন্ত্র করছেন বলে অভিযোগ করেছেন সরকার ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যরা। রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়ে সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তারা এ কথা বলেন। তারা এই ষড়যন্ত্র মোকাবেলার জন্য দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ রবিবার রাতে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে এই আলোচনায় অংশ নেন সরকারি দলের হাবিবুর রহমান, বেগম ফাতেমা জোহরা রানী, সেলিনা বেগম ও বিরোধী দল জাতীয় পার্টির বেগম খোরশেদ আরা হক। 

আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান বিএনপি-জামায়াতের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ক্ষমতায় থাকতে তারা দেশের হাজার হাজার কোটি টাকা দুর্নীতি করে বিদেশে পাচার করেছে। জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করেছে। আবার ক্ষমতার বাইরে থেকে আন্দোলনের নামে শত শত মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে, সারা দেশে অগ্নিসন্ত্রাস চালিয়েছে। এসব কারণে দলটিকে দেশবাসী ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। এই অগ্নিসন্ত্রাসী দলকে জনগণ আগামী নির্বাচনেও প্রত্যাখ্যান করবে।

জাতীয় পার্টির বেগম খোরশেদ আরা হক বলেন, দেশে যে উন্নয়ন-অগ্রগতির ধারা সূচিত হয়েছে, তা শেষ করতে আরো অনেক সময় লাগবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ দেশটির জন্য যা করেছেন, তা সত্যিই নজীরবিহীন। প্রায় ১০ লাখ অসহায় রোহিঙ্গাদের শেখ হাসিনা আশ্রয় না দিলে তারা কেউ বাঁচতে পারতেন না। এ কারণে গোটা বিশ্ববাসী শেখ হাসিনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ। সুন্দর এ বাংলাদেশকে অশান্তি করে ধ্বংস করতে চায়। এরা (বিএনপি) যেসব অপকর্ম করেছে তাদের বাংলাদেশে থাকারই কোনো অধিকার নেই।

সরকারি দলের বেগম ফাতেমা জোহরা রানী বলেন, যারা এতিমের টাকা মেরে খায়, তারা রাজনীতির নামে অক্টোপাস। এরা ক্ষমতায় আসলে এবার গোটা দেশকেই গিলে খাবে। নির্বাচনে হেরে যাওয়ার ভয়ে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া আবোল-তাবোল বকছেন। কারণ তিনি দুর্নীতিতে ফেঁসে গেছেন। বিএনপি নেত্রী জানেন এতিমের টাকা আত্মসাতের কারণে দণ্ডিত হবেন। আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন কি না, এটাই সন্দেহ। এসব কারণেই আগামী নির্বাচনকে ঘিরে তাঁরা নানা ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু এবার দেশবাসীই তাদের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করবে।

সংরক্ষিত নারী আসনের আরেক সংসদ সদস্য সেলিনা বেগম বলেন, বিএনপি বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধ করেছিল। কিন্তু সত্যকে মিথ্যা দিয়ে ঢেকে রাখা যায় না। ওই ভাষণটিই আজ আন্তর্জাতিকভাবে শ্রেষ্ঠ ভাষণের স্বীকৃতি পেয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, আপাদমস্তক নিজের জোড়াতালি বলেই বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া পদ্মা সেতুতে জোড়াতালি দেখেন। শেখ হাসিনার গৃহীত মেগাপ্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে দেশবাসী অবশ্যই আওয়ামী লীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনবে।


মন্তব্য