kalerkantho


সরকার পরোক্ষভাবে এই নির্বাচন স্থগিত করেছে : মওদুদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ২০:৩৪



সরকার পরোক্ষভাবে এই নির্বাচন স্থগিত করেছে : মওদুদ

ফাইল ছবি

সরকার পরোক্ষভাবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে নির্বাচন স্থগিত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ। আজ শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) ছাত্র সংগঠন জাগপা-ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মওদুদ আহমদ এ মন্তব্য করেন।

মওদুদ বলেন, ডিএনসিসির উপ-নির্বাচন নিয়ে রিটের শুনানি পরদিন পর্যন্ত মুলতবি করা হয়েছিল। ওইদিন অ্যাটর্নিকে শুনানি করতে আদালত নির্দেশ দিয়েছিল। অনেক মামলাতেই অ্যাটর্নি শুনানি করতে যান, অথচ তিনি ডিএনসিসির রিট শুনানিতে গেলেন না। এ থেকেই বোঝা যায় সরকার পরোক্ষভাবে এই নির্বাচন স্থগিত করেছে।

মওদুদ আহমদ আরও বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশনের এমন একটা ভাব, যে স্থগিতাদেশ একটা স্থায়ী বিষয়, এর বিরুদ্ধে যেন আপিল করা যায় না। তাঁর দাবি, আপিল করলে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হয়ে যেত। ফলে নির্বাচন হতো। অথচ দুই পক্ষই এখন হাত-পা গুটিয়ে বসে আছে। তিনি আরও বলেন, সরকার বুঝেছে নির্বাচনে হেরে যাবে, এ জন্য তারা আপিল করেনি। আর নির্বাচন কমিশনও যেহেতু ওই পথেরই পথিক, তাই তারাও আপিল করেনি। মওদুদ মনে করেন, নির্বাচন চাইলে রাষ্ট্রপক্ষ এখনো আপিল করতে পারে।

জাগপা-ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় জাগপা সভানেত্রী রেহানা প্রধান, সহসভাপতি তাসমিয়া প্রধান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

প্রসঙ্গত, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং উত্তর ও দক্ষিণ সিটির নতুন ১৮টি ওয়ার্ডে ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোট হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হাইকোর্টের আদেশে এই নির্বাচন আটকে গেছে।

 

 


মন্তব্য