kalerkantho


দিনাজপুরে টাকার জন্য স্ত্রীকে কোপ

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



বাপের বাড়ি থেকে টাকা না এনে দেওয়ায় দিনাজপুরে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে মো. মামুনুর রশিদ (৩৭) নামের এক পাষণ্ড। এ ঘটনায় মামুনুর রশিদকে আটক করেছে পুলিশ। সে সদর উপজেলার ১ নম্বর চেহেলগাজী ইউনিয়নের মহাবলীপুর গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে।

জানা যায়, মামুনুর রশিদের সঙ্গে ১৭ বছর আগে একই গ্রামের মৃত গাজী মুসলিম উদ্দিনের মেয়ে মোছা. মাসুমা লায়লার প্রেম করে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পরিবারের অন্য সদস্যদের প্ররোচনায় পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে মামুন। এ নিয়ে সে প্রায়ই মাসুমাকে নির্যাতন করত। এরই মধ্যে তাদের সংসারে এক ছেলে ও এক মেয়ে হয়। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় মাসুমার স্বামী, ননদ ও শ্বশুর-শাশুড়ি মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মাসুমাকে জখম করে। এতে মাসুমা অচেতন হয়ে গেলে মামুন তাঁকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। পরে মাসুমার বাপের বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ মাসুমার স্বামীকে হাসপাতাল থেকে আটক করে।

এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই মাসুমা তাঁর স্বামী মামুনুর রশিদ, ননদ মৌসুমী বেগম, শ্বশুর আব্দুল মজিদ (৬০) ও শাশুড়ি রশিদা বেগমকে (৫০) আসামি করে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করেছেন। কোতোয়ালি থানার ওসি মো. রেদওয়ানুর রহিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


মন্তব্য