kalerkantho


নারী ইউপি সদস্যকে মারধরের অভিযোগ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



ঝালকাঠির রাজাপুরে সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) এক নারী সদস্যকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন মজিবর মৃধার বিরুদ্ধে। এমনকি তাঁর সঙ্গে অশালীন আচরণ করে নানা ধরনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ইউপি সদস্য নুরুন নাহার নিরু।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন ওই ইউপি সদস্য ও উপজেলা মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে নুরুন নাহার নিরু অভিযোগ করেন, ইউনিয়নের বিধবা ও বয়স্ক ভাতার তালিকা জমা দেওয়ার জন্য গত ১৮ এপ্রিল মেডিক্যাল মোড়ে চেয়ারম্যানের রড সিমেন্টের দোকানে যান তিনি। চেয়ারম্যানের কাছে তালিকা জমা দিলে তিনি তা দেখে কারো কারো নাম বাদ দিয়ে তাঁর দেওয়া নামের তালিকা দিতে বলেন। তখন নুরুন নাহার যাঁর যাঁর তালিকা তাঁর দেওয়ার কথা বলেন।

ইউপি সদস্য অভিযোগ করেন, এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান তাঁকে অশালীন ভাষায় গালাগাল করেন। চুলের মুঠি ধরে তাঁকে মারধর করেন। তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে উপস্থিত ইউপি সদস্য মিজান মাঝি ও সংরক্ষিত সদস্য নাজমা ইয়াসমিন মুন্নি চেয়ারম্যানের হাত থেকে তাঁকে উদ্ধার করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ওই ইউপি সদস্যের সঙ্গে সংরক্ষিত আসনের নারী ইউপি সদস্য নাজমা ইয়াসমিন মুন্নি উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে রাজাপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন মজিবর মৃধা বলেন, ‘আমি তাকে মারধর করিনি। তার কাছে আমি টাকা পাই, সেই টাকা এখনো সে পরিশোধ করেনি। নুরুন নাহারের বিরুদ্ধে বয়স্ক ও বিধবা ভাতার কার্ড করে দেওয়ার জন্য টাকা নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। আমরা প্রকৃত অসহায় মানুষকে এই কার্ড দিতে চাই।’


মন্তব্য