kalerkantho


হাসপাতালে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আহত ছাত্রলীগ নেতা

ঢাকায় প্রেরণ পিঠে ১০-১২টি সেলাই

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৮ ০০:০০



সহকর্মীকে হাসপাতালে দেখতে এসে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন মহসীন মোল্লা নামে এক ছাত্রলীগ নেতা। গত বৃহস্পতিবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। উন্নত চিকিৎসার জন্য মহসীন ও সহকর্মী জয় হোসেনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পৌর এলাকার টেংকের পাড়ের কমিউনিটি সেন্টারে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ইফতার মাহফিলে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মিকাইল হোসেন হিমেল এবং জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক ও বিজয়নগর উপজেলার চর ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তফসিরুল ইসলামের কথা-কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ছাত্রলীগকর্মী তফসিরুলপক্ষের জয় হোসেনসহ অন্তত পাঁচজন আহত হন। তাঁদের দেখতে হাসপাতালে যান জেলা ছাত্রলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক তফসিরুলপক্ষের মহসীন মোল্লা। রাত ১০টার দিকে মহসীনকে হাসপাতাল এলাকায় পেয়ে ধাওয়া করে জরুরি বিভাগে নিয়ে যায় মিকাইলপক্ষ। একপর্যায়ে তাঁকে সেখানেই ছুরিকাঘাতে আহত করা হয়। স্থানীয় এক সাংবাদিক তাঁকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। তাঁর পিঠে ১০-১২টি সেলাই দেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ছুটে আসে। পরে শহরের বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল জানিয়েছেন, এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী দায়িত্ব নিয়েছেন। সংসদ সদস্যের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহদাৎ হোসেন শোভন জানান, ইফতার মাহফিলে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বিচ্ছিন্ন একটি ঘটনা ঘটে। উভয় পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চলছে।

 


মন্তব্য