kalerkantho


সিটি নির্বাচনে এমপিদের প্রচার

সিদ্ধান্তহীনতায় এখনো ইসি

বিশেষ প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০১৮ ০০:০০



সিটি নির্বাচনে নির্বাচনী এলাকার বাইরের সংসদ সদস্যদের প্রচারের সুযোগ রেখে প্রস্তাবিত আচরণ বিধিমালার বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত পেয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে ঈদের আগে প্রজ্ঞাপন জারি হচ্ছে না। ৩০ জুলাই হতে যাওয়া তিন সিটি নির্বাচনে এমপিরা প্রচারের সুযোগ পাবেন কি না, সে বিষয়টি কমিশনের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। গতকাল মঙ্গলবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সভাপতিত্বে কমিশনের সভা শেষে এ তথ্য জানান ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘ইসি থেকে আচরণবিধি ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। ভেটিং সহকারে এটি আমরা গতকাল (সোমবার) পেয়েছি। তবে কমিশন সভায় এ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। এ বিষয়ে কমিশন বলেছে, যেহেতু আচরণবিধি এজেন্ডাভুক্ত ছিল না, সেহেতু  ঈদের পরে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

সচিব বলেন, ঈদের পরে কমিশন বিষয়টি পর্যালোচনা করে সংশোধিত আচরণবিধির প্রজ্ঞাপন জারি করবে। প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ার পর সংশ্লিষ্ট এলাকার বাইরের সংসদ সদস্যরা প্রচারে যেতে পারবেন। প্রজ্ঞাপন না হলে যেতে পারবেন না।

এদিকে আগামী ২৬ জুন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন। ঈদের পর ১৮ জুন থেকে এ সিটিতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা প্রচার শুরু করবেন। কমিশন আগেই জানিয়ে রেখেছিল, গাজীপুরে সংশোধিত আচরণবিধি প্রযোজ্য হবে না এবং সে ক্ষেত্রে এমপিরা সেখানে প্রচারের সুযোগ পাবেন না।

রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশনের তফসিল কার্যকর হচ্ছে আজ বুধবার। ৩০ জুলাই এই তিন সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে।

তিন সিটিতে তফসিল কার্যকর হওয়ার পর সংশোধিত আচরণ বিধিমালার প্রজ্ঞাপন জারি হলে সে নির্বাচনে এমপিরা প্রচারের সুযোগ পাবেন কি না, জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ‘এটা আইনগত মতামত নিয়ে বলা যাবে। ঈদের পরে প্রজ্ঞাপন হওয়ার পর কমিশন সভায় এ নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। কমিশন যদি বলে এটা ভুতাপেক্ষ হবে, তাহলে এমপিরা প্রচারের সুযোগ পেতে পারেন।’

এর আগে ২৯ মে তিন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল জানিয়ে দেওয়ার পর সচিব বলেছিলেন, ১৩ জুনের আগে আচরণ বিধিমালা সংশোধন হলে এটি তিন সিটিতে কার্যকর হবে, না হলে হবে না।

গত ২৪ মে নির্বাচন কমিশন সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে সচিব হেলালুদ্দীন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সব এমপি দলের প্রার্থীর পক্ষে প্রচার চালাতে পারবেন। কিন্তু এর চার দিন পর ২৯ মে সিইসি কে এম নুরুল হুদা সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয় এমপিরা এ সুযোগ পাবেন না। নির্বাচনী এলাকার বাইরের এমপিরা এ সুযোগ পাবেন।

গত ১৩ এপ্রিল সিইসির সঙ্গে বৈঠক করে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধিদল স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এমপিদের প্রচারের সুযোগ দিতে নির্বাচনী আচরণবিধি সংশোধনের দাবি জানায়। এতে পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনের চারজন সদস্য সম্মতি দেন। অন্য সদস্য বিরোধিতা করেন।


মন্তব্য