kalerkantho


সুপারিশ বাস্তবায়নে এগিয়ে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়

সংসদীয় কমিটির বৈঠকে মন্ত্রীর শতভাগ উপস্থিতির রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ জুন, ২০১৮ ০০:০০



সংসদীয় গণতন্ত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মূল ভূমিকায় থাকা বেশির ভাগ সংসদীয় কমিটির কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন থাকলেও ব্যতিক্রম সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। এ কমিটি সংসদের কার্যপ্রণালী বিধি অনুযায়ী প্রতি মাসে একটি করে বৈঠক করতে না পারলেও কমিটির বৈঠকে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের শতভাগ উপস্থিতি ছিল। যা সংসদীয় কমিটির বৈঠকে নতুন রেকর্ড। তবে গত তিন বছর অনুপস্থিত রয়েছেন কমিটির বিরোধীদলীয় সদস্য এম এ হান্নান। এ কমিটির সব সুপারিশই বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জাতীয় সংসদে জমা দেওয়া সংসদীয় কমিটির পৃথক দুটি প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। সংসদের চলতি অধিবেশনে এই প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়। প্রতিবেদনে দেওয়া তথ্যানুযায়ী, ২০১৪ সালের ২৯ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করা চলতি সংসদের প্রথম অধিবেশনে সংসদীয় কমিটিগুলো গঠিত হয়। আর সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ২০১৪ সালের ২২ এপ্রিল। ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত এ কমিটি ২৭টি বৈঠক করেছে। এর মধ্যে প্রথম ২৪টি বৈঠকে ১৬৩টি সুপারিশ ছিল। এরই মধ্যে শতাধিক সুপারিশ বাস্তবায়ন হয়েছে। আর বাকি সুপারিশ বাস্তবায়নের কাজ চলছে।

এ বিষয়ে সংসদীয় কমিটির সভাপতি বেগম সিমিন হোসেন রিমি কালের কণ্ঠকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনায় সংসদীয় গণতন্ত্রকে শক্তিশালী ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সুসংহত করতে বর্তমান সংসদীয় স্থায়ী কমিটিগুলো কাজ করছে। এ ক্ষেত্রে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রীও আন্তরিক। যে কারণে তিনি কমিটির সব বৈঠকে উপস্থিত থেকেছেন। আর কমিটি বৈঠকের সুপারিশ ও পরামর্শগুলো বাস্তবায়নে উদ্যোগ নিয়েছেন। স্থায়ী কমিটির সুপারিশ ও পরামর্শগুলো মন্ত্রণালয় যথাযথভাবে গুরুত্ব প্রদান করায় সংসদীয় গণতন্ত্র অধিকতর অর্থবহ করার প্রয়াস পাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।



মন্তব্য