kalerkantho


গাজীপুর সিটি নির্বাচন
মওদুদ বললেন

গাজীপুরের নির্বাচন দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, ‘গাজীপুরের নির্বাচন হবে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের জন্য এসিড টেস্ট। আমরা দেখব তারা কী করে। গাজীপুরের নির্বাচনে অসম্ভব জনসমর্থন রয়েছে ধানের শীষের পক্ষে। যদি খুলনা স্টাইলে নির্বাচন করে গাজীপুরে, এর পরিণতি হবে ভয়াবহ। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। গাজীপুরের নির্বাচনের পর আমরা ঠিক করব, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব, বাকি তিনটি সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব কী করব না।

গতকাল শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরাম আয়োজিত কারাবন্দি খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে এক আলোচনাসভায় এসব কথা বলেন মওদুদ।

মওদুদ আহমদ বলেন, জুন মাস পার হয়ে যাচ্ছে। ডিসেম্বর মাস বাদ দিয়ে দেন। মাঝখানে আর মাত্র চার মাস। সময় এসেছে প্রতিরোধ গড়ে তোলার। অন্যায়-অবিচার-অত্যাচার-নির্যাতন-বিচারবহির্ভূত হত্যা-গুম-গ্রেপ্তার-মিথ্যা মামলা—এসবের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। এর জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

মওদুদ বলেন, ‘নিম্ন আদালত নির্বাহী বিভাগের অধীনে চলে গেছে। হাইকোর্ট থেকে অর্ডার দিলেন যে ম্যাজিস্ট্রেট, বললেন ওনার (খালেদা জিয়া) জামিনের আবেদনগুলো খুব তাড়াতাড়ি করে নিষ্পত্তি করে দেন। আদালত অবমাননা এর চাইতে বড় আর কী হতে পারে? তাঁরা এখন নির্বাহী বিভাগের অধীনে কাজ করেন।’ তিনি বলেন, খালেদা জিয়া শুধু একজন সাধারণ নাগরিক নন। তাঁর জামিনের তারিখ এক দিন দিলেন জামিনের শুনানি করে। বললেন, শুনানি হবে। শুনানির তারিখ দিলেন আগস্ট মাসের ২৮ তারিখে।

সংগঠনের উপদেষ্টা মেহেদী হাসান পলাশের সভাপতিত্বে ও সভাপতি মুহাম্মদ সাইদুর রহমানের পরিচালনায় আলোচনাসভায় বিএনপির শামীমুর রহমান শামীম, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম যুক্তরাজ্য শাখার সভাপতি ব্যারিস্টার আনোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ লেবার পার্টির একাংশের মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদি প্রমুখ বক্তব্য দেন।

মামলা ছাড়াই গাজীপুরে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে : রিজভী

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে থাকা নেতাদের গ্রেপ্তারের তালিকা প্রকাশ করেছে বিএনপি। দলটির দাবি, এ পর্যন্ত ১২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কোনো মামলা ছাড়াই সাদা পোশাকে পুলিশ তাঁদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে।

গতকাল শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী এ কথা বলেন।



মন্তব্য