kalerkantho


ডেন্টাল ক্লিনিকে কম্প্রেসার মেশিন বিস্ফোরণ

মোহাম্মদপুরে চিকিৎসক ও রোগী দগ্ধ

রামপুরায় গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০



রাজধানীর মোহাম্মদপুরে মোহাম্মদীয়া হাউজিং সোসাইটি এলাকায় একটি ডেন্টাল ক্লিনিকে কম্প্রেসার মেশিন বিস্ফোরণে চিকিৎসকসহ দুজন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এঁরা হলেন শিকদার মেডিক্যাল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. সৈয়দ নজরুল হুদা (৪৫) এবং সাভারের বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের প্রভাষক মাহবুবুল হক (৫০)। তাঁদের দুজনের বাসা মোহাম্মদপুর হাউজিং সোসাইটিতে।

দগ্ধ চিকিৎসক নজরুল হুদা সাংবাদিকদের জানান, মোহাম্মদীয়া হাউজিং সোসাইটিতে সৈয়দ ডেন্টাল নামে তাঁর একটি ক্লিনিক আছে। সন্ধ্যায় মাহবুবুল হক সেখানে দাঁতের চিকিৎসা করাতে আসেন। রাতে কম্প্রেসার মেশিন দিয়ে চিকিৎসা করার সময় হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানান, ডা. নজরুল ইসলামের মুখ ও দুই হাত ঝলসে গেছে। মাহবুবুল হকের দুই হাত মুখ মাথাসহ শরীরের ১৫ শতাংশ ঝলসে গেছে। 

এদিকে রাজধানীর রামপুরায় জাহাঙ্গীর হোসেন (২৭) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বিকেল ৪টার দিকে বাসার ফ্যানের সঙ্গে গলায় বৈদ্যুতিক তার পেঁচিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। পরে তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। জাহাঙ্গীর কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন তা জানা যায়নি। তাঁর গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার দাউদকান্দি। তিন ভাই দুই বোনের মধ্যে তিনি চতুর্থ। তিনি পূর্ব রামপুরা ওয়াপদা রোডের অমর আলী লেনের একটি ছয়তলা ভবনের চতুর্থ তলায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। মৌচাক মার্কেটে একটি কাপড়ের দোকানে সেলসম্যানের কাজ করতেন জাহাঙ্গীর।



মন্তব্য