kalerkantho


গণমাধ্যমকে বিএনপি

১১ দিন খালেদার সঙ্গে সাক্ষাৎ মিলছে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



বিএনপি মহাসচিব বলেছেন, ‘১১ দিন ধরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাঁর আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব কাউকে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। আমরা পারছি না, আইনজীবীরাও দেখা করতে পারেননি। ৩০ জুন সর্বশেষ তাঁরা দেখা করেছেন। আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে দেখা করা একজন কারাবন্দির সাংবিধানিক অধিকার।’ গতকাল বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই দাবি করেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘দেখা-সাক্ষাতের ব্যাপারে জেল সুপারকে বলা হলে তিনি বলেন আইজি প্রিজনের কথা। আইজি প্রিজনকে বললে তিনি মন্ত্রীকে বলতে বলেন। মন্ত্রীর কাছে গেলে তিনি বলেন, এক নম্বরের সম্মতি ছাড়া আমার পক্ষে কোনো কিছু করা সম্ভব নয়। আমি নিশ্চয় আপনাদের (গণমাধ্যম) বোঝাতে পেরেছি। এখানে সম্পূর্ণভাবে জেল সুপার ইজ দ্য ফাইনাল অথরিটি, কারাবিধি লঙ্ঘন করে আজকে সাক্ষাতের অনুমতি দেওয়ার জন্য আমাদের যদি সরকারের প্রধান ব্যক্তির কাছে যেতে হয় তাহলে তো এ দেশে আর কিছু অবশিষ্ট নেই।’

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা আশঙ্কা করছি—দেশনেত্রীকে প্রকৃতপক্ষে এক হচ্ছে, রাজনীতি থেকে ও দুই, নির্বাচন থেকে এবং সর্বশেষ, তাঁকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে কি না সেটাই আমাদের এখন আশঙ্কার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’ খালেদা জিয়ার সঙ্গে একজন নারী কর্মীকে থাকার অনুমতি দিয়ে সরকার যে বাহবা নেওয়ার চেষ্টা করছে, তা জাতির সঙ্গে ধোঁকাবাজি উল্লেখ করে তিনি বলেন, কারাবিধি ৯৪৮ অনুসারে সরকার একজন মহিলা কর্মী দিতে বাধ্য।



মন্তব্য