kalerkantho


নিউ ইয়র্কে ব্যবসায়ী ও মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম

'বাজেট থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার প্রধানমন্ত্রীর যুগান্তকারী পদক্ষেপ'

সাবেদ সাথী, নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি   

১৩ আগস্ট, ২০১৭ ০২:৩৬



'বাজেট থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার প্রধানমন্ত্রীর যুগান্তকারী পদক্ষেপ'

অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবিত বাজেটে থেকে ভ্যাট প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত ছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুগান্তকারী পদক্ষেপ। ব্যবসায়ীদের উপর অর্থমন্ত্রীর চাপিয়ে দেওয়া ভ্যাট প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সংশোধন করা না হলে ব্যবসায়ীদেরকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হতো।

ভ্যাট প্রত্যাহার করা না হলে বাজেটের সমালোচনার পাশাপাশি বিএনপি-জামায়াত চক্র এটা নিয়ে আন্দোলন করার একটা সুযোগ পেত।

গত বুধবার সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের একটি রেস্তোরাঁয় পার্বতীপুর সমিতি আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় বিশিষ্ট আবাসন ব্যবসায়ী ও কেন্দ্রিয় আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধালীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম সরকার এসব কথা বলেন।

মিচুয়াল প্রপার্টি লিমিটেড এর স্বত্তাধিকারী আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নসহ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতা অব্যহত থাকলে আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগ জয়লাভ করবে এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়।

আমিনুল ইসলাম আরো বলেন, বাজেট ২০১৭-১৮ আগামী দুই বছরের জন্য নতুন ভ্যাট আইন স্থগিতের পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই দুই বছর আগের ১৯৯১ সালের আইনেই ভ্যাট আদায় করা হবে। আপত্তির মুখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের ব্যবসায়ীদেরকে আশার আলো দেখিয়ে বলেছেন, ‘নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে যেহেতু কথা উঠেছে, ব্যবসায়ীরাও এই আইনে তেমন সাড়া দিচ্ছেন না, সে কারণে আমি মনে করি এই আইন আগে যেমন ছিল আগামী দুই বছরও তেমনই থাকবে।

প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যবসায়ীদের উপর চাপিয়ে দেওয়া ভ্যাট আরোপিত হলে দেশে ব্যবসা করাই দুস্কর হয়ে পরতো।

তাই ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে অশেষ ধন্যবাদ জানান।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম গত সপ্তাহে ব্যক্তিগত সফরে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন। অ্যারিজোনার অঙ্গরাজ্যে তার ছেলের বাসা ঘুরে নিউ ইয়র্কে এসেছিলেন মাত্র দু'দিনের জন্য। এ সময় স্থানীয় পার্বতীপুর সমিতির নেতৃবৃন্দরা তাৎক্ষনিক আয়োজনে তাকে সংবর্ধনা প্রদান করেন। সংবর্ধনার জবাবে তিনি উপস্থিত পার্বর্তীপুরবাসীদের ধন্যবাদ জানান।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আপনারা আমাকে আজ যে সম্মান দেখিয়েছেন তা চিরদিন স্মরণ থাকবে। ঢাকায় বেড়াতে গেলে তিনি তার বাড়িতে যাবারও আমন্ত্রণ দেন সকলকে।

পার্বতীপুর সমিতি ইউএসএ'র সভাপতি ইউনুস আলীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান খোকনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সংবর্ধনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন উপদেষ্টা কামরুল হাসান বাবুল, ফজলুল কাদের, তোশারফ হোসেন তুষার ও মোহা. শফি উল্লাহ প্রমুখ।  

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান খোকন বলেন, আজ অল্প সময়ের মধ্যে হলেও আমরা এলাকার একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মান জানাতে পেরে নিজেদেরকে গর্বিত বোধ করছি। শুধু আমিনুল ইসলাম সরকার নয় আমাদের এলাকার যে কোন ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রে এলেই আমরা তাদেরকে সম্মান জানানোর চেষ্টা করবো। অনুষ্ঠানে নিউ ইয়র্কের পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন স্টেট থেকে আগত পার্বতীপুরের প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।  


মন্তব্য