kalerkantho


দেহ-মনের জন্য সর্বোত্তম ব্যায়ামটি কী?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ আগস্ট, ২০১৭ ১২:১৭



দেহ-মনের জন্য সর্বোত্তম ব্যায়ামটি কী?

আপনি কি আপনার মেজাজ-মর্জি ভালো করা, স্মৃতিশক্তির উন্নতি এবং মস্তিষ্ককে বয়স সংশ্লিষ্ট জ্ঞানীয় অক্ষমতা থেকে রক্ষার সবচেয়ে কার্যকর প্রাকৃতিক উপায়টি জানতে চান?

তাহলে চলতে থাকুন।

সম্প্রতি প্রচুর গবেষণা থেকে এবং চলতি মাসে প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণা থেকে জানা গেছে, যেকোনো ধরনের ব্যায়াম যা আপনার হার্টবিটের গতি বাড়িয়ে দেয় এবং আপনাকে চলন্ত রাখে ও বেশ কিছু সময় ধরে ঘাম ঝরায় তা আপনার মস্তিষ্কের জন্য বিস্ময়কর রকম উপকারী। এই ধরনের ব্যায়ামকে বলে অ্যারোবিক এক্সারসাইজ বা বায়ুজীবী ব্যায়াম।

'অ্যারোবিক এক্সারসাইজ আপনার মাথার জন্য খুবই উপকারী যেমন করে এটি উপকারী আপনার হার্টের জন্য। ' হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল ব্লগে 'মাইন্ড অ্যান্ড মুড' নামের একটি নিবন্ধের লেখক বলেছেন এই কথা।

বিশেষজ্ঞদের টিপস
মাত্র অল্প কয়েক মিনিটের সাইকেল চালানোর ফলে আপনার মেজাজ ভালো হয়ে যেতে পারে। তবে স্মৃতিশক্তির উন্নতির জন্য অন্তত কয়েক সপ্তাহ ধরে একটি অ্যারোবিক ব্যায়াম করতে হবে। প্রতিদিন অন্তত টানা ৪৫ মিনিট ধরে এমন একটি ব্যায়াম করতে হবে।

এ সম্পর্কীয় সর্বশেষ গবেষণায় দেখা গেছে, স্তন ক্যান্সারের চিকিৎসার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় স্মৃতিশক্তি হারানো কিছু মানুষকে নিয়মিত অ্যারোবিক এক্সারসাইজ করানোর ফলে তাদের স্মৃতিশক্তির উন্নতি হয়েছে।

আর তীব্র অবসাদে আক্রান্ত একদল লোকের ওপর চালানো অপর একটি গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন মাত্র ৩০ মিনিট করে টানা ১০ দিন ট্রেডমিলে হাঁটার পর তারা অবসাদ থেকে পুরোপুরি মুক্তি পেয়েছেন।

আপনার বয়স যদি হয় ৫০ এর বেশি তাহলে ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা মতে, সবচেয়ে ভালো ফল পাবেন অ্যারোবিক এবং রেজিসটেন্স এক্সারসাইজের সমন্বয় করার মাধ্যমে।

এর মধ্যে থাকতে পারে যেকোনো কিছু যেমন, হাই-ইনটেনসিটি ইন্টারভাল ট্রেইনিং থেকে সেভেন-মিনিট ওয়ার্ক আউট, ডাইনামিক ফ্লো ইয়োগা। এর সঙ্গে থাকতে পারে স্টেংথ বিল্ডিং পোজেস যেমন, প্লাঙ্কস অ্যান্ড পুশ-আপস; সঙ্গে হার্ট-পাম্পিং ড্যান্স-লাইক মুভস।

মে মাসে প্রকাশিত আরেকটি গবেষণায় দেখা গেছে, ৬০-৮৮ বছর বয়সী বুড়োরা যদি প্রতিদিন ৩০ মিনিট করে সপ্তাহে চার দিন টানা ১২ সপ্তাহ হাঁটাহাঁটি করেন তাহলে তাদের স্মৃতিশক্তি শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

গবেষকরা এখনো নিশ্চত নন, কেন এই ধরনের ব্যায়াম মস্তিষ্ককে উদ্দীপিত করে। তবে গবেষণায় দেখা গেছে, এর ফলে মস্তিষ্কের রক্ত সরবরাহ বেড়ে যায় যা আমাদের মস্তিষ্ককে সজীব শক্তি এবং অক্সিজেন সরবরাহ করে।

আর সম্প্রতি স্মৃতিভ্রংশ রোগে আক্রান্ত কিছু বৃদ্ধ নারীর ওপর একটি গবেষণায় দেখা গেছে, অ্যারোবিক এক্সারসাইজের ফলে তাদের মস্তিষ্কের হিপ্পোক্যাম্পাস অঞ্চলের আকার বেড়েছে। মস্তিষ্কের এই অংশটি শেখা এবং স্মৃতি ধরে রাখার কাজ করে।

ব্রিটিশ গবেষণাটির প্রধান গবেষক এবং ক্যানবেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যায়াম বিজ্ঞানী জো নর্থি বলেন, তার গবেষণায় দেখা গেছে, স্বাস্থবান যেকোনো মানুষ যাদের বয়স ৫০ পেরিয়ে গেছে তাদের উচিত প্রতিদিন অন্তত ৪৫ মিনিট দৌঁড়ানো। আর সপ্তাহে যত বেশি দিন সম্ভব ততদিন এই ব্যায়াম করা উচিত। সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার


মন্তব্য