kalerkantho


ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে নিয়মিত খেতে হবে এই খাবারগুলো

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ অক্টোবর, ২০১৭ ১০:২৫



ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে নিয়মিত খেতে হবে এই খাবারগুলো

১. মুসাম্বি লেবু বা জাম্বুরা
এই ফলটিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। এই ভিটামিনটি শরীরে ক্যান্সার সেলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

তাই নিয়মিত এই ফলটি খেলে ক্যান্সার রোগের ফাঁদে পড়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে। প্রসঙ্গত, মুসাম্বি লেবুর পরিবারে থাকা বাকি লেবুদের শরীরেও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি মজুদ রয়েছে। তাই মুসাম্বি লেবু খেতে যদি ইচ্ছা না করে, তাহলে পাতি লেবু, কমলা লেবু অথবা বেল পেপারের কোনো একটা খেতেই পারেন।

২. ডালিম
এই ফলটিতে রয়েছে অ্যালেজিক অ্যাসিড নামে একটি অতি শক্তিশালী ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট, যা ক্যান্সার সেলকে ধ্বংস করতে দারুনভাবে সক্ষম। তাই চিকিৎসকেরা প্রতিদিনের ডায়েটে ডালিমকে অন্তর্ভুক্ত করার কথা বলছেন। প্রসঙ্গত, ডালিমের বীজও এ ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই ইচ্ছা হলে দইয়ে মিশিয়ে ডালিম বীজও খেতে পারেন।

৩. ক্রসিফেরাস পরিবারের সবজি
সহজ কথায় ক্যান্সার রোগকে দূরে রাখতে বেশি করে খেতে হবে ব্রকলি, ফুলকপি এবং বাঁধাকপির মতো সবজি। কারণ এই সবজিগুলিতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট, যা ক্যান্সার সেলের বেড়ে ওঠা আটকানোর মধ্যে দিয়ে এই মারণ রোগকে দূরে রাখতে সাহায্য করে।

৪. চা
চায়ের মধ্যে থাকা কেটেচিন নামক একটি উপাদান ক্যান্সার সেলকে শুধু নষ্ট করে না। সেই সঙ্গে সেলুলার মিউটেশান আটকাতেও বিশেষ ভূমিকা নেয়। ফলে নতুন করে ক্যান্সার সেল জন্ম নেওয়ার আশঙ্কাও অনেক কমে যায়। প্রসঙ্গত, জাপানে হওয়া একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত গ্রিন টি পান করেন, তাদের ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অন্যদের তুলনায় কম থাকে। শুধু তাই নয়, যারা নিয়িমত চা পান করেন তাদের কোলন, ব্রেস্ট, ওভারিয়ান, প্রস্টেট এবং লাং ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একেবারে কমে যায়।

৫. হলুদ
এই মশলাটিতে থাকা কার্কিউমিন নামক একটি উপাদান শরীরের ভেতরে প্রদাহ কমানোর পাশাপাশি রক্তে ভেসে বেড়ানো টক্সিক উপাদানগুলোকে শরীর থেকে বের করে দেয়। ফলে কোষের বিভাজন ঠিক মতো না হওয়ার কারণে ক্যান্সার সেল জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা একেবারে কমে যায়।

৬. রাঙা আলু
এই সবজিটিতে রয়েছে বিটা-ক্যারোটিন নামক একটি অতি শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা লাং, কোলন এবং স্টমাক ক্যান্সারকে ধারে কাছে ঘেঁষতে দেয় না। শুধু তাই নয়, রাঙা আলুতে উপস্থিত নানাবিধ উপকারী উপাদান ব্রেস্ট ক্যান্সার রোধেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।
সূত্র : বোল্ডস্কাই


মন্তব্য