kalerkantho


রোগবালাই দূরে রাখতে চাই...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৮:৪১



রোগবালাই দূরে রাখতে চাই...

ছবি অনলাইন

ইতিবাচক চিন্তা

শক্ত ও সহনশীল দেহের জন্য কিন্তু ইতিবাচক চিন্তা এক বড় ওষুধ। যদি আপনার মনে বিশ্বাস থাকে যে আপনি অনেক শক্তিশালী, তবে সহজে জ্বরাগ্রস্ত হবেন না।

নিজের দেহ-মন সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা পোষণ করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। গবেষণায় দেখা গেছে, যাঁরা এ ধরনের চিন্তা করেন, তাঁদের ঠাণ্ডা-সর্দির আশঙ্কা অন্যদের তুলনায় চার গুণ কম থাকে।

পর্যাপ্ত পানি

সাধারণ সূত্রটি হলো—প্রতিদিন অন্তত আট গ্লাস পানি খেতে হবে। তবে ব্যক্তিভেদে এই পরিমাণ হেরফের হতে পারে। মোট কথা, যাঁরা পর্যাপ্ত পানি পান করেন তাঁরা অনেক সুস্থ থাকেন।

পর্যাপ্ত ঘুম

এ কাজের মাধ্যমে দেহ যেকোনো ক্ষতি পুষিয়ে নেয়। তাই বিজ্ঞানীরা প্রতিদিন অন্তত আট ঘণ্টা ঘুমাতে বলেন। অনেকের অবশ্য ছয় ঘণ্টাতেই শরীর ঝরঝরে হয়ে যায়।

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা

অনেক সময় এমন হয় যে বাড়ির কেউ একজন অসুস্থ হলে অন্যরাও অসুস্থ হতে থাকে।

এ ধরনের ঘটনায় সবাই ব্যবহার করে এমন জিনিসগুলো জীবাণুমুক্ত করতে হবে। যেমন—দরজার হাতল, সুইচ, রিমোট কন্ট্রোল, টয়লেটের ফ্ল্যাশ, মোবাইল ফোন ইত্যাদি।

হাসি

হাসি এমন এক অস্ত্র, যা সব জ্বরাকে দূরে রাখতে সক্ষম। তাই বিজ্ঞানীরা সবাইকে হাসার পরামর্শ দেন। হাসির মাধ্যমে দেহে সুখকর হরমোনের নিঃসরণ ঘটে। তাই মন খারাপ থাকলে কোনো হাসির অনুষ্ঠান দেখুন। কিংবা হাসির ছবি দেখতে চলে যান।

সবুজ খাবার

শাকসবজি যাদের প্রিয় খাবার, তাদের সহজে রোগ কাবু করতে পারে না। এমনিতেই এসব খাবার অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ঠাসা। তাই তারা রোগ প্রতিরোধী ক্ষমতায় অদম্য হয়ে ওঠে। আরো মেলে নানা ধরনের ভিটামিন আর খনিজ। এগুলো পেলে দেহ-মন কখনো অসুস্থতার কাছে হারে না।

--টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে সাকিব সিকান্দার


মন্তব্য