kalerkantho


ঈদ আনন্দহীন পাঁচ শতাধিক শিক্ষক পরিবার

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০



দীর্ঘদিন ধরে বেতন-ভাতা না পাওয়ায় যশোরের মণিরামপুরের নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষক পরিবারগুলোতে ঈদ আনন্দ নেই। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের দেওয়া তথ্য মতে, বেতন-ভাতাহীন শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় সাড়ে পাঁচ শ। আর নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে ৮৮টি। এগুলোর মধ্যে ১০টি ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকরা নামমাত্র এক হাজার ২০০ টাকা করে ভাতা পান।

বেতন-ভাতাহীন এসব শিক্ষকের মধ্যে কেউ কেউ ১০-১২ বছর, কেউ বা আবার ২১ বছর ধরে পাঠদান করছেন। কিন্তু বেলা শেষে তাঁদের নিজেদের পরিবারের কান্নাই দূর হয় না। সারা বছর টানাপড়েনে হলেও সংসারটা অন্তত চলে যায়; কিন্তু বিপত্তি ঘটে ঈদের মতো বড় কোনো উৎসবের সময়। উপজেলার এইচ আর এইচ সম্মিলনী নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘১৮ বছর ধরে বিনা বেতনেই খাটছি। আমার প্রতিষ্ঠানের দু-তিনজন ধান কাটার মৌসুমে দিনমজুরির কাজও করেন।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকরাম হোসেন বলেন, ‘নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা আসলে অনেক কষ্টের মধ্যেই আছেন। কিন্তু বিষয়টা যেহেতু জাতীয়, তাই এ ব্যাপারে আমাদের কিছু করার নেই। সরকার তাঁদের সুুবিধা দিলে অবশ্যই তাঁরা সে সুবিধা পাবেন।’



মন্তব্য