kalerkantho


রোহিঙ্গাদের মধ্যে উচ্চ অপুষ্টি হারের কারণে উদ্বেগ ডাব্লিউএফপির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ নভেম্বর, ২০১৭ ২০:৫৭



রোহিঙ্গাদের মধ্যে উচ্চ অপুষ্টি হারের কারণে উদ্বেগ ডাব্লিউএফপির

জাতিসংঘ বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডাব্লিউএফপি) কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের মধ্যে উচ্চ অপুষ্টি হারের কারণে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।  

নতুন এক জরিপ অনুযায়ী কুতুপালং ক্যাম্পে অপুষ্টির হার আশঙ্কাজনক উল্লেখ করে ডাব্লিউএফপি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণের বিষয়টি এখানে গুরুত্বপূর্ণ।

পাশাপাশি সুপেয় পানি, স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানা ও স্বাস্থ্যসেবার সুবিধা বৃদ্ধির প্রচেষ্টা গ্রহণ করাও জরুরি। ’ 

এতে বলা হয়, প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, প্রতি চারজন রোহিঙ্গা শিশুর মধ্যে একজন অপুষ্টিতে ভুগছে, যা পূর্ববর্তী সময়ের চেয়ে অধিক।  

ইউনিসেফ, অ্যাকশন কন্ট্রি লা ফেইম, সেভ দ্য চিলড্রেন, ইউএনএইচসিআর,ও ডব্লিউএফপি এই জরিপটি পরিচালনা করে।  

বিবৃতিতে বলা হয়, ডাব্লিউএফপি ৬৮ হাজারেরও বেশি অন্তস্বত্বা মহিলা ও ছোট ছেলেমেয়েদের মায়েদের মধ্যে পুষ্টির সহায়তার জন্য ইতোমধ্যে সুপার সিরিয়াল প্লাস বিতরণ করেছে। সুপার সিরিয়াল প্লাস এক প্রকার মিশ্রণ, যা পুষ্টি তৈরিতে সহায়ক। এতে বলা হয়, জাতিসংঘ সংস্থাটি প্রায় ৬ লাখ ৮০ হাজার জনগণের মধ্যে চাল, মটরশুটি ও তেল সরবরাহ করবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ডাব্লিউএফপি স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও নতুন আগত উভয় ক্ষেত্রেই খাদ্য নিরাপত্তা ও সুন্দর জীবনযাত্রা নিশ্চিত করতে চায়। তাই উভয়ে যাতে উপকৃত হয় সেজন্য আমরা সুযোগ সৃষ্টির জন্য কাজ করছি। ’ 

এতে বলা হয়, ‘নতুন আগত রোহিঙ্গা ও যারা ইতোমধ্যে সীমান্তের কাছে ক্যাম্পে ও বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে তাদেরসহ কক্সবাজার অঞ্চলে ১০ লাখ মানুষের সহায়তার জন্য ডব্লিউএফপি’র জরুরিভিত্তিতে ৫৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রয়োজন।


মন্তব্য