kalerkantho


বর্ষার আগেই রোহিঙ্গাদের জরুরি সহায়তা আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ মার্চ, ২০১৮ ১৫:০৪



বর্ষার আগেই রোহিঙ্গাদের জরুরি সহায়তা আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

ছবি অনলাইন

আসন্ন বর্ষা মৌসুমে রোহিঙ্গা শরনার্থীদের অস্থায়ী বাড়িঘর প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আশঙ্কায় তাদের স্বাস্থ্যঝুঁকি মোকাবেলায় আন্তজার্তিক সম্প্রদায়ের কাছে ১৬.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আর্থিক সহায়তা চেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

আজ বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক ড. পুণম ক্ষেত্র পাল আন্তজার্তিক সম্প্রদায়ের প্রতি এ আহ্বান জানিয়ে বলছেন, আশ্রিত প্রায় ১৩ লাখ রোহিঙ্গার সঠিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে আর্থিক সংকট রয়েছে। তাছাড়া আসছে বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টিপাতের ফলে স্বাভাবিক জীবন-যাপন ব্যহাতসহ নানা রোগব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

ড. পাল বলেন, বাংলাদেশ সরকার বা কোনো একক সংস্থার পক্ষে বিশাল রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা সম্ভব নয়।

মিয়ানমার থেকে বিতারিত রোহিঙ্গারা পাহাড়ের ওপর যেখানে আশ্রয় নিয়েছেন সে এলাকা সাইক্লোন ও ভূমিধস প্রবন এলাকা। বর্ষা এলেই পাহাড়ের মাটি ধসে পড়ার ঝুঁকি রয়েছে। তাছাড়া বিশুদ্ধ পানির অভাব ও ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়াবাহী মশার প্রকোপ রয়েছে।

আজ সহযোগীদের সঙ্গে এক বেঠকে তিনি প্রেক্ষাপট তুলে ধরে বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পাশাপাশি শতাধিক দাতা সংস্থা আসছে বর্ষায় রোহিঙ্গাদের জীবন ও স্বাস্থ্য রক্ষায় নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে নির্মিত ২০৭টি স্থাপনার এক চর্তুথাংশ ভূমিধ্বসের ঝুঁকিতে থাকায় সেগুলো অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হবে। এসব কাজে বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রয়োজন বলে তিনি জানান।


মন্তব্য