kalerkantho


রাশিয়ান হ্যাকারদের নিয়ে ইংলিশ ফুটবলে ভীতি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৪:৩১



রাশিয়ান হ্যাকারদের নিয়ে ইংলিশ ফুটবলে ভীতি!

হ্যাকিংয়ের ব্যাপারে রাশিয়ার বেশ নাম ডাক আছে সারা বিশ্বে। হ্যাকিং এর মাধ্যমে যা ইচ্ছে তা করে ফেলছেন হ্যাকারেরা, তাই তাদের কার্যকলাপ নিয়ে বেশ শঙ্কিত সাধারন মানুষ।

মাঝে মধ্যেই খবর পাওয়া যায় বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে পাক হ্যাকারদের হামলা। তাই ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে সাইবার হামলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল ইংল্যান্ডের ফুটবল সংস্থা এফএ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে রাশিয়ান হ্যাকারদের হামলা বেশ কয়েকদিন ধরেই 'হট টপিক' ছিল। তাই এসব কথা মাথায় রেখেই এফএ ফিফার কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। ইংল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন তাদের ফুটবলারদের পাবলিক ওয়াই ফাই ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে। কারণ পাবলিক ওয়াই ফাই থেকে হ্যাকিং এর বিরাট সুবিধা রয়েছে। পাশাপাশি হোটেলে ওয়াইফাই সংযোগ ভেরিফাই করতে বলা হয়েছে।

এফএর চিঠির বিষয় বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা বলেছে, 'আমরা এফএর প্রস্তাব পেয়েছি।  সাইবার হামলা নিয়ে আমরা বেশ চিন্তিত।

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ গ্রহণ করা হবে। '

গতবছই টেনিস সুপরাস্টার রাফায়েল নাদাল ও মো ফারাহকে ফাঁসিয়ে দিয়েছিল রাশিয়ান হ্যাকাররা। গোটা বিশ্বে প্রচার করে দিয়েছিল নিষিদ্ধ ড্রাগ নিয়েছেন এই দুজন।  আর সেটার অনুমতি দিয়েছে খোদ বিশ্ব ডোপবিরোধী সংস্থা (ওয়াডা)! ওয়াডার ডেটাবেস থেকেই নাকি এই প্রমাণ পাওয়া গেছে! গোপনীয় এই তথ্যগুলো ফাঁস করেছিল রাশিয়ার হ্যাকার গ্রুপ 'ফ্যান্সি বিয়ারস'।

ডোপ টেস্টে ধরার পর রাশিয়ার শতাধিক অ্যাথল্যাট রিও অলিম্পিকে নিষিদ্ধ হওয়ার পরই তারা এই কাজ করেছিল। হ্যাকারদের দাবি ছিল, এর পেছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র আছে। সেই দাবি প্রমাণ করতেই এখন বিশ্ব ডোপবিরোধী সংস্থার ডেটাবেস হ্যাক করে একের পর এক বিভিন্ন গোপনীয় তথ্য ফাঁস দিয়েছিল 'ফ্যান্সি বিয়ারস হ্যাকার গ্রুপ'। কিন্তু মেষ পর্যন্ত তা ধোপে টেকেনি।


মন্তব্য