kalerkantho


স্থানীয় ক্রিকেটারদের জন্য আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের ভাবনা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:২৬



স্থানীয় ক্রিকেটারদের জন্য আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের ভাবনা

ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) গত আসরে এক একটি দল সর্বোচ্চ ৪জন করে বিদেশি ক্রিকেটার খেলাতে পারতেন। কিন্তু চলতি পঞ্চম আসরে সেই সংখ্যাটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫জনে।

অর্থাৎ নিজেদের টুর্নামেন্টে দেশের ক্রিকেটাররাই স্থান পাচ্ছেন না! এ কারণেই শুধু দেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা ভাবছে বিসিবি। আজ শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে এমন ভাবনার কথা জানালেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক।

ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট যেসব দেশে চালু আছে সেগুলোর বেশিরভাগেই এর বাইরে আরও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হয়। সেই উদাহারণ দেখেই এবার নড়েচড়ে বসেছে বিসিবি। বোর্ডের কর্তাব্যক্তিরা মনে করছেন, বিপিএলে স্থানীয় ক্রিকেটাররা সেভাবে সুযোগ না পাওয়ায় টি-টোয়েন্টি প্রতিভা বের করে আনা সম্ভব হচ্ছে না। টি-টোয়ন্টিতে তাই পিছিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এসব কারণে সব দিক বিবেচনা করেই আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টর কথা ভাবছে বিসিবি।

ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, 'বিপিএল এবার যেভাবে চলছে, তাতে আমরা খুশি। তবে একটা ব্যাপার আমরা চিন্তা করছিলাম, স্থানীয় ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স বাড়ানো নিয়ে।

আমরা ভেবেছি, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের অধিনেই আরেকটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করব। শুধু স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে। হয়ত চার-পাঁচটি দল থাকবে। '

বিপিএলের মত টুর্নামেন্টে খেলার জন্য স্থানীয় ক্রিকেটারদের মাঝে লড়াকু মনোভাব তৈরী করতে চায় বিসিবি। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের আয়োজনে ওই টুর্নামেন্টটি ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক হবেনা। বিসিএলের মত বিভিন্ন জোন নাম দিয়ে হবে। এতে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও খেলবেন। জাতীয় দলের সিরিজের সঙ্গে যাতে সাংঘর্ষিক না হয়, তেমন একটা সময়ে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হবে।

টুর্নামেন্টের সময়সূচি নিয়ে মি. মল্লিক বললেন, 'এটা কখন করব, কোন সময়টায় হবে, সেসব এখনও ঠিক করিনি। স্রেফ প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। বোর্ড সভাপতি সবুজ সঙ্কেত দিয়েছেন। ৫-৭ দিনের টুর্নামেন্ট হবে। টুর্নামেন্টটি করতে হবে বিপিএলের আগে এবং আমাদের জাতীয় দলের সূচি দেখে, যখন ওদের পাওয়া যাবে। '


মন্তব্য