kalerkantho


শুরু হচ্ছে বিপিএলের উত্তেজনাকর নক-আউট পর্ব

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৮:২৭



শুরু হচ্ছে বিপিএলের উত্তেজনাকর নক-আউট পর্ব

লিগ পর্ব শেষে আগামীকাল শুক্রবার থেকে মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এলিমিনেটর ও প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। দুপুর ২টায় দিনের প্রথম এলিমিনেটর ম্যাচে মুখোমুখি হবে লিগ পর্বে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় ও চতুর্থস্থান পাওয়া খুলনা টাইটানস ও রংপুর রাইডার্স।

সন্ধ্যা ৭টায় প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে লড়বে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে দুই দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ও ঢাকা ডায়নামাইটস।

১২ ম্যাচে ৯ জয়ে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে লিগ পর্বের খেলা শেষ করে তামিম ইকবালের কুমিল্লা। আর ১২ ম্যাচে ৭ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে আছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস। নিয়মানুযায়ী পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুদলকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম কোয়ালিফায়ার।

প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচের বিজয়ী দল টিকিট পাবে ফাইনালের। তবে হেরে গেলেও, টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেবে না তারা। হেরে যাওয়া দলটি চলে যাবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে। সেখানে এলিমিনেটরের বিজয়ী দলের বিপক্ষে লড়বে তারা। শীর্ষে দুইয়ে থাকার কারণে এই সুবিধা পাচ্ছে কুমিল্লা ও ঢাকা।

তবে এলিমিনেটরের খুলনা ও রংপুরের জন্য নক আউটের ম্যাচ। এ ম্যাচে হেরে গেলেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিতে হবে একটি দলকে। জয় পাওয়া অন্য দলটি টিকিট পাবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারের ম্যাচ খেলার জন্য।  

চলতি আসরে এখন পর্যন্ত দুবার মুখোমুখি হয়েছে কুমিল্লা ও ঢাকা। দুবারই জয়ী দলের নাম কুমিল্লা। গত ২০ নভেম্বর ঢাকায় স্বাগতিকদের ৪ উইকেটে হারায় তামিম ইকবালের দল। এরপর গত ২৯ নভেম্বর চট্টগ্রামের মাটিতে ঢাকাকে ১২ রানে হারায় তারা। যে কারণে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচটি কুমিল্লার বিপক্ষে ঢাকার প্রতিশোধ মিশনও বটে!

খুলনা ও রংপুর রাইডার্সও লিগ পর্বে দুবার মুখোমুখি হয়েছে। ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রামে প্রথম দেখায় ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয় পায় খুলনা। তবে ঢাকায় ৩ ডিসেম্বর খুলনাকে ১৯ রানের ব্যবধানে হারিয়ে প্রতিশোধ নেয় রংপুর। তাই দুদলের মুখোমুখি দেখায় হার-জিত সমান থাকলেও, এলিমিনেটরে জয় ছাড়া অন্যকিছুই ভাবছে না দল দুটি।

এলিমিনেটর ও প্রথম কোয়ালিফায়ারের পর আগামী ১০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আর টুর্নামেন্টের ফাইনাল হবে আগামী ১২ ডিসেম্বর। ফাইনালের জন্য পরের দিন রিজার্ভ ডে হিসেবে রাখা হয়েছে।


মন্তব্য