kalerkantho


দক্ষিণ আফ্রিকা-ভারত টেস্ট সিরিজে যাদের ওপর স্পটলাইট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৪:২২



দক্ষিণ আফ্রিকা-ভারত টেস্ট সিরিজে যাদের ওপর স্পটলাইট

ছবি কোলাজ: কালের কণ্ঠ

কেপটাউনে আগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। বাংলাদেশ সময় দুপুর আড়াইটায় শুরু হবে সিরিজের প্রথম ম্যাচ। পুরো সিরিজ জুড়ে স্পট লাইট থাকবে দুই দলের কিছু ক্রিকেটারের ওপর। এসব ক্রিকেটারদের পারফরমেন্সের ওপরই নির্ভর করছে নিজ নিজ দলের সাফল্য। 

ভারত


বিরাট কোহলি : গত দুই বছর ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুণ্য প্রর্দশন করেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। টেস্ট ফরম্যাটে সেঞ্চুরিগুলো ডাবল-সেঞ্চুরিতে পরিণত করেন তিনি। গত বছর তিনটি ডাবল-সেঞ্চুরির স্বাদ পেয়েছেন কোহলি। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে টানা ২ বছর টেস্টে ১ হাজার রান করেছেন ভারত দলপতি।

এ ছাড়া কোহলির অধিনায়কত্ব সুনাম কুড়িয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটে। তার নেতৃত্বে ২০১৫ সালের জুন থেকে ভারত কোনো টেস্ট সিরিজ হারেনি। ১০টি টেস্ট সিরিজের মধ্যে ৯টিতে জয় ও ১টিতে ড্র করে ভারত। তাই কোহলির ব্যাটিং ফর্ম ও অধিনায়কত্বে বর্তমানে সেরার কাতারে রয়েছে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের সাফল্য অনেকটাই নির্ভর করছে কোহলির পারফরমেন্সের ওপর। 

চেতেশ্বর পুজারা : সাবেক অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়ের পর ভারতের এই প্রজন্মের 'দ্য ওয়াল' খেতাব ইতিমধ্যেই পেয়ে গেছেন চেতেশ্বর পুজারা। ব্যাটিং পজিশনে তিন নম্বর স্থানটি নিজের করে নিয়েছেন তিনি। সেখানে রানের ফুলঝুরি ফুটিয়ে চলেছেন পুজারা। ২০১৭ সালে ১১৪০ রান করেছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

১১ টেস্টে তার গড় ৬৭.০৬। তার এমন ব্যাটিং পরিসংখ্যান দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে ভারতকে সাহস যোগাবে। ২০১০ ও ২০১৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করেছিলেন পুজারা। ২০১৩ সালে সর্বশেষ আসরে ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন তিনি। দুই ম্যাচের ৪ ইনিংসে ২৮০ রান করেন তিনি। 

ভুবেনশ্বর কুমার : ভারতের পেস আক্রমণে অন্যতম ভরসার নাম ভুবেনশ্বর কুমার। ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন তিনি। বোলিংয়ে গতি কম থাকলেও সুইং দিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে পারদর্শী ভুবি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজের সর্বশেষ ম্যাচে ৮ উইকেট নিয়েছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনে ভুবির সুইং প্রতিপক্ষকে ভোগাবে বলে প্রত্যাশা ভারতের।

মোহাম্মদ শামি : ভুবেনশ্বর কুমারের সাথে ভারতের পেস অ্যাটাকে আরেক ভরসার নাম মোহাম্মদ শামি। ইনজুরির কারণে ২০১৭ সালে খুব বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি। তবে ৫ ম্যাচে অংশ নিয়েই ১৯ উইকেট ঝুলিতে ভরেছেন শামি। ২০১৩ সালে দলের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করেছিলেন শামি। ওই সিরিজে ভারতের সেরা বোলারও ছিলেন তিনি। ৪ ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন শামি। তাই অতীতের অভিজ্ঞতা এবার কাজে দিবে শামির।

দক্ষিণ আফ্রিকা


এবি ডি ভিলিয়ার্স : দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং লাইন-আপের অন্যতম ভরসার নাম সাবেক অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। এ জন্য এই সিরিজকে কোহলি-ডি ভিলিয়ার্সের সিরিজ বলে অ্যাখায়িত করছেন অনেকেই। তবে এটি মানতে নারাজ দুই বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান। তাদের মতে, দলীয় পারফর্মেন্সেই সাফল্য আসবে। একজন কোহলি কিংবা একজন ডি ভিলিয়ার্সের জন্য নয়।

দীর্ঘদিন পর গত মাসের শেষের দিকে টেস্ট ক্রিকেটে ফিরেছেন ডি ভিলিয়ার্স। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দিবা-রাত্রির ৪ দিনের টেস্টে অবশ্য ৫৩ রান করেছেন এই মারকুটে ব্যাটসম্যান। ভারতের বিপক্ষে ডি ভিলিয়ার্সের গড় ৪০। তারপরও ভারতের বিপক্ষে পুরো টেস্ট সিরিজে তার ওপর থাকছে স্পট লাইট।

হাশিম আমলা : ভারতের বিপক্ষে সব সময়ই দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন 'ঠাণ্ডা মাথার খুনি' হিসেবে পরিচিত হাশিম আমলা। ভারতের বিপক্ষে ১৮ ম্যাচে তার রান ১৩২৫। ২০১৭ সালে টেস্ট ফরম্যাটে নিজের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছিলেন তিনি। ১২ ম্যাচে ৯৪৭ রান করেন আমলা। দক্ষিণ আফ্রিকার ভালো ফলাফল নির্ভর করছে আমলার পারফর্মেন্সের ওপর।

ডেল স্টেইন : কাঁধের ইনজুরির থেকে সুস্থ হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দলে আবারো জায়গা করে নিয়েছেন পেসার ডেল স্টেইন। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের দলে ছিলেন তিনি। কিন্তু ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি স্টেইন। তবে আশা করা হয়েছিল ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টেই বল হাতে দেখা যাবে তাকে। কিন্তু দুর্ভাগ্য, প্রথম টেস্টে স্টেইনকে না নেয়ার পক্ষে কোচ ওটিস গিবসন। তবে ম্যাচ শুরুর ঠিক আগ মূহূর্তে স্টেইনের ব্যাপারে সিদ্বান্ত নেবে দক্ষিণ আফ্রিকা টিম ম্যানেজমেন্ট। যদি খেলার সুযোগ পান স্টেইন তবে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মাথা ব্যাথার কারণ হবেন তিনি। কারণ, ভারতের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ১৩ টেস্টে ৬৩ উইকেট রয়েছে তার।

কেশব মহারাজ : ২০১৬ সালে পার্থে টেস্ট অভিষেক হয় কেশব মহারাজের। এরপর থেকে টেস্ট ফরম্যাটে নিজের জাত চিনিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ইতিমধ্যে ১৪ টেস্ট খেলে ৫৬ উইকেট নিয়েছেন তিনি। গত বছরই নিয়েছেন ৪৮ উইকেট। এবারই প্রথম ভারতের বিপক্ষে মুখোমুখি হবেন মহারাজ। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষায় ফেলবে তার বাঁহাতি স্পিন। 

ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে সাফল্য পেয়েছেন মহারাজ। তার ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ৪০ রানে ৬ উইকেট। অভিষেকের পর দেশ ও দেশের বাইরে সমানতালে পারফর্মেন্স করেছেন তিনি। তাই তাকে নিয়ে স্পিন আক্রমণ সাজাবে দক্ষিণ আফ্রিকা।


মন্তব্য