kalerkantho


সেঞ্চুরির আনন্দে যে কাণ্ড করেছিলেন মার্শ ভাতৃদ্বয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:৩৪



সেঞ্চুরির আনন্দে যে কাণ্ড করেছিলেন মার্শ ভাতৃদ্বয়

আগে রান পূর্ণ কর, পরে আনন্দ করবি- মিচেল মার্শকে নিশ্চয়ই এ কথাই বলছিলেন শন মার্শ। ছবি: এএফপি

অ্যাশেজ সিরিজের ফয়সলা আগেই হয়ে গেছে। আজ হয়ে গেল পঞ্চম তথা শেষ ম্যাচের ফলাফল। ইনিংস এবং ১২৩ রানে পরাজয়ের লজ্জা পেল ইংল্যান্ড। এই টেস্টে উল্লেখযোগ্য ঘটনা বললে বলা যায় অস্ট্রেলিয়ার দুই ভাই শন মার্শ এবং মিচেল মার্শের জোড়া সেঞ্চুরি। একই ইনিংসে দুই ভাই সেঞ্চুরির ঘটনা অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট ইতিহাসে তৃতীয় ঘটনা। বিশ্বে অষ্টম।

মিচেল মার্শের সেঞ্চুরির মুহূর্তটিতে মজার এক কাণ্ড করেছিলেন এই দুই ভাই। ম্যাচ শেষ সংবাদ সম্মেলনে এই কাণ্ডের প্রসঙ্গ উঠতেই হাসিতে ফেটে পড়েন দুজনেই। কী ঘটেছিল? তিন অংকে পৌঁছানোর জন্য বলটি ঠেলে দিয়েই রান নেওয়ার জন্য দিলেন দৌঁড়। অন্যপ্রান্তে থাকা বড় ভাই শন মার্শ আগেই সেঞ্চুরি করে ফেলেছেন। তিনিও ভাইয়ের আমন্ত্রণ রক্ষা করতে দৌঁড় দিয়েছেন। কিন্তু সেঞ্চুরির উত্তেজনায় রান পূর্ণ না করেই ক্রিজের মাঝপথে শন মার্শকে জড়িয়ে ধরে নাচতে থাকেন মিচেল! 

ইতিহাসের অংশ হয়ে গেলেন দুই ভাই। ছবি: এএফপি

ভাইয়ের পরামর্শে অবশ্য রানটি পুর্ণ করেছিলেন মিচেল। দিনের খেলা শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে প্রসঙ্গটা উঠতেই হেসে ফেলেন দুজন। শন বলেন, 'ভুলটা আমারই। আবেগের বশে আমিই জড়িয়ে ধরতে চেয়েছিলাম ওকে। তারপরে মিচেল বলেন, 'আগে ওকে রানটা পূর্ণ করতে বলেছিলাম। ভাগ্যক্রমে শেষ পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। আমি ওর জন্য খুব খুশি।'

মিচেল সব শুনে হাসতে হাসতে বলেন, 'আমি তো হাই ফাইভ করতে গিয়েছিলাম। শন জড়িয়ে ধরল। আমরা তখন ক্রিজের মাঝামাঝি। সেকেন্ডের ভগ্নাংশ সময়ের জন্য আমরা চাপে পড়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই ছিল। '

গ্রেগ চ্যাপেল-ইয়ান চ্যাপেল এবং স্টিভ ওয়া-মার্ক ওয়ার পরে এই নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে এক ইনিংসে দুই ভাইয়ের সেঞ্চুরি করার তৃতীয় উদাহারণ তৈরী করলেন মার্শ ভাতৃদ্বয়। মিচেলের ১০১ এবং শন মার্শের ১৫৬ রানের সুবাদে সিডনি টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটে ৬৪৯ রানে ইনিংস ঘোষণা করে অজিরা। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১৮০ রানে অল-আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড।


মন্তব্য