kalerkantho


ছোট পোশাক পরলেই নাকি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে : বিরাট কোহলি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১৬:২৮



ছোট পোশাক পরলেই নাকি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে : বিরাট কোহলি

ভারত এমন একটি রাষ্ট্র যেখানে, ভয়ানক সব নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে আবার একযোগে মাঠে নামেন রাজনৈতিক থেকে শুরু করে বলিউড-ক্রিকেট জগতের তারকারা। জম্মু-কাশ্মীরের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ৮ বছর বয়সী এক শিশুকন্যাকে লাগাতার কয়েকদিন ধর্ষণ এবং হত্যার ঘটনায় যথারীতি ফুঁসে উঠেছে ভারতের ক্রিকেটাঙ্গণ। সেই ধারাবাহিকতায় এবার তীব্র প্রতিবাদ জানালেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

আইপিএল চলাকালীন সময়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন কোহলি। তিনি তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, 'এরকম একটা ঘটনা দেখা এবং তারপরও নির্লিপ্ত থাকা কাপুরুষতা। সেই সমস্ত মানুষের পুরুষ বলে পরিচয় দিতেই লজ্জা করা উচিত। আমার একটাই প্রশ্ন আছে। ঈশ্বর না করুন, যদি আপনাদের বাড়ির কারও সঙ্গে এরকম হতো, আপনারা কি চুপ করে দেখতেন? নাকি সাহায্যের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তেন?'

তিনি আরও বলেন, 'আমার মনে হয় এই ধরনের ঘটনা ঘটতে দেওয়া হয়। সকলে নীরব থাকেন এবং ভাবেন, এটা খুব স্বাভাবিক। একজন মেয়ে ছোট পোশাক পরলেই নাকি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে! আরে, এটা ওই মেয়েটির জীবন, ওর সিদ্ধান্ত, ওর পছন্দ। পুরুষরা যদি মনে করে এটা তাদের অপকর্ম করার এবং বিচার থেকে বেঁচে যাওয়ার সুযোগ বাড়াচ্ছে এবং যারা ক্ষমতায় রয়েছেন, তারা যদি আড়াল করার চেষ্টা করেন, তাহলে সেটা ভয়ঙ্কর। আমি স্তম্ভিত। নিজেকে এই সমাজের অংশ মনে  করতে লজ্জা লাগছে।'

এদিন আরও তীব্রভাবে এই ঘটনার প্রতিবাদ জানান বিনোদ কাম্বলি। শচীন টেন্ডুলকারের ঘনিষ্ঠ বন্ধু, সাবেক এই ক্রিকেটার লিখেছেন, 'প্রিয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি রাতারাতি মুদ্রা বদলে ফেলতে পারেন। রাতারাতি ট্যাক্স আদায়ের সিস্টেম পরিবর্তন করতে পারেন। আপনি সরকারও বদলে দিতে পারেন রাতারাতি। এখন যদি আপনি এই জঘন্য ধর্ষণের সংস্কৃতি পরিবর্তন করতে না পারেন, ধর্ষকদের যদি সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারেন, তবে আমিও কিন্তু রাতারাতি আমার ভোট বদলে ফেলব! ২০১৯ কিন্তু বেশি দূরে নয়...।

ইতি: আপনার আস্থাভাজন (অথবা নয়)

একজন ভোটার (কেটে লেখা)

একজন ইন্ডিয়ান'


মন্তব্য